চীন-আমেরিকা বাণিজ্য যুদ্ধে বিপাকে সিঙ্গাপুর

প্রকাশিত: ১:৩২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৮ | আপডেট: ১:৩২:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০১৮

আমেরিকা ও চীনের মধ্যে চলমান বাণিজ্য যুদ্ধের ধাক্কায় এবার বিপাকে পড়েছে এশিয়ার অন্যতম অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী দেশ সিঙ্গাপুর। আর এ ধাক্কা সামলাতে ইতিমধ্যে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে সিঙ্গাপুরের ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানগুলো। সিঙ্গাপুরের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের বরাত দিয়ে এমনটাই জানিয়েছে বিবিসি।

বিবিসির প্রতিবেদনটিতে একটি উদাহরণ দিয়ে বলা হয়েছে, ওয়াটসন ইপি ইন্ডাস্ট্রিজ সিঙ্গাপুরের একটি ব্যবসায়িক কোম্পানি যারা চীনে তাদের কারখানায় স্পিকার বানিয়ে থাকে।

এখন চীনের নতুন যে সব পণ্যকে আমেরিকা নিশানা করছে, তার ফলে তাদের স্পিকারের ব্যবসায় ধ্বস নামার আশঙ্কা করছেন কোম্পানিটি।

ওয়াটসনের নির্বাহী পরিচালক জয়েস সোও বিবিসিকে বলেন , ‘দুয়ের মাঝখানে পড়ে আমাদের আসলে স্যান্ডউইচের মতো দশা। এখানে আমাদের কন্ঠস্বরও খুব স্তিমিত, গন্ডগোলের ভেতর আমাদের কথাও কেউ শুনতে পাচ্ছে না।’

‘যদিও আমাদের আশা সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে এবং এই বাণিজ্য যুদ্ধ থামবে – সত্যিই জানি না কী হবে, নিশ্চিতভাবে কিছুই বলা যায় না। ঘটতে পারে যে কোনও কিছুই, তাই একটা কোম্পানি হিসেবে সবচেয়ে খারাপটার জন্যই আমরা তৈরি হচ্ছি।’

এই পটভূমিতে একেবারেই আশাবাদী হতে পারছেন না সিঙ্গাপুরের বাণিজ্যমন্ত্রী চ্যাং চুন সিং। তিনি বিবিসিকে বলছেন, ‘বিশ্ব অর্থনীতির ওপর দুনিয়ার আস্থাটা যদি একবার টলে যায় – এই বাণিজ্য যুদ্ধের নেতিবাচক প্রভাব পড়ে এবং বিনিয়োগকারীরা তাদের লগ্নি বন্ধ করে দেন – তাহলে আমার ধারণা আমাদের সবাইকে এর খুব মারাত্মক পরিণাম ভোগ করতে হবে। আর সেটা হবে সমগ্র বিশ্ব অর্থনীতির জন্যই।’

বিবিসির প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, ওয়াশিংটন ও বেইজিং যেভাবে একে অপরের বিরুদ্ধে নতুন নতুন বাণিজ্যিক শুল্ক বা ট্যারিফ বসানোর হুমকি দিচ্ছে এতে শুধু সিঙ্গাপুরের বাণিজ্য-নির্ভর অর্থনীতিতে নয় এর মারাত্মক প্রভাব পড়বে দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া বা তাইওয়ানের মতো এশিয়ার অন্যান্য দেশে।