চুয়াডাঙ্গায় বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ৬

প্রকাশিত: ১০:০৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ | আপডেট: ১০:০৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা: চুয়াডাঙ্গায় নবাগত পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম যোগদানের পর জেলার বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনের সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে জানতে পারেন চুয়াডাঙ্গা জেলার অধিকাংশ সীমানা ভারত সীমান্তঘেঁষা। আর তাই মাদক সিন্ডিকেট ও গডফাদারদের নিরাপদ রুট হিসেবে ব্যবহার হয় চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা ও জীবননগর।

ভারত থেকে সরাসরি পাচার করে দেশের অভ্যন্তরে পাঠানো হচ্ছে মাদকের বড় ধরনের চালান। আর ধরা ছোয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে মাদকের গডফাদাররা।

কয়েকটি বিচ্ছিন্ন বন্দুক যুদ্ধ ও ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ এর গুলিতে নিহত হওয়ার পরও থেমে মাদকের রমরমা বানিজ্য।অনেকে সুধীমহলের সাথে সৌজন্যতা রক্ষা করে গোপনে চালিয়ে যাচ্ছে ফেন্সিডিল সহ বিভিন্ন মাদকের ব্যবসা।

এমন খবর নবাগত পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জানতে পেরে জেলার সর্বস্তরে মাদকের বিরুদ্ধে কারফিউ জারি করে দেন। এবং মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীদেরও তালিকা করে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন পুলিশ বাহিনীকে। এবং মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ মাদক হবে নিঃশ্বেস এবং মাদকের ধংসাত্মক ছোবল থেকে দেশের যুব সমাজকে রক্ষা করার জন্য জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করেন।

কোন রকম মাদকের সম্পৃক্ততা পেলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ। জননেত্রী শেখ হাসিনার সেই স্বপ্নকে সফল ও বাস্তবায়ন করতে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ সুপার সদ্য যোগদানের পর থেকে প্রতিনিয়ত মাদক কারবারিদেরকে আটক করতে সমর্থ হচ্ছেন। সেই সাথে সুধীমহলের প্রশংসা ও আস্থা অর্জনে সক্ষম হচ্ছেন। তারই চেষ্টার প্রতিফলে চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের দিনব্যাপী মাদক বিরোধী সাড়াশী অভিযানে দামুড়হুদা থানার অফিসার ইনচার্জ সুকুমার বিশ্বাসের নেতৃত্বে উপজেলার আরামডাঙ্গা হতে পীরপুরকুল্লাহ মাদ্রাসা পাড়ার হেকমত আলীর ছেলে সামাদুল হাসনাথ (২৫) কে ১০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করা হয়।

অপর দিকে পৃথক আরেকটি অভিযানে দামুড়হুদা পীরপুরকুল্লা মাদ্রাসাপাড়া হতে ০৫ বোতল ফেন্সিডিল সহ সুলতান বিশ্বাসের ছেলে আব্দুল জব্বার (৩০) আটক করা হয়।

এদিকে জেলার আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ কর্তৃক অভিযান পরিচালনা করে বাদেমাজু গ্রামের যমুনার মাঠ হতে ৮ পিচ ইয়াবাসহ আঃ মান্নানের ছেলে কায়েম আলী (২৭) ও আব্দুল বারেকের ছেলে লাল মিয়া (২৫) কে আটক করে। এবং জীবননগর থানা পুলিশের অভিযানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জীবননগর হাসপাতাল মোড় হতে ৩৬ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঝিনাইদাহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলার সলেমানপুর গ্রামের অহিদুল বিশ্বাসের ছেলে আরিফুল (২৫) ও তার সহযোগী গনি মন্ডলের ছেলে তমিজউদদীন (৫৫) কে আটক করে।

এসমস্ত মাদক ব্যবসায়ীদেরকে মাদক ও চোরাচালান আইনে মামলা দায়ের করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।