চোরকেই পাহারার দায়িত্ব দিচ্ছে টুইটার!

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০ | আপডেট: ৯:১৪:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০

চোরকেই যদি পাহারাদারের দায়িত্ব দেওয়া হয়, তাহলে কি হতে পারে ভেবে দেখেছেন কখনো? সোশ্যাল মিডিয়া সাইট টুইটার এবার তেমন ই করতে চলেছে। টুইটারে সুরক্ষা নিয়ে কিছু গুরুতর সমস্যা দেখা দিচ্ছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। সেজন্য এবার টুইটার কর্তৃপক্ষ এই সাইটের সুরক্ষার দায়িত্ব তুলে দিচ্ছে বিশ্বের নামকরা হ্যাকারদের হাতে!

চমকপ্রদ ঘটনা হলেও এটি আসলে প্রকৃত বুদ্ধিমানের কাজ। সাধারণ প্রযুক্তিবিদরা একটি সাইটের সুরক্ষা বিষয়ে যতটা জানে, একজন হ্যাকারকে তার চেয়ে অনেক বেশি জানতে হয়। ফলে হ্যাকারদের হাতে সুরক্ষার ভার তুলে দিলে সুরক্ষার ত্রুটিগুলি তারা আরো ভালো ভাবে নির্দেশ করতে পারবে। সুতরাং এই পদক্ষেপ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়।

টুইটার কর্তৃপক্ষ সোমবার জানিয়েছে যে, টুইটার তার নিরাপত্তা বিভাগের প্রধান হিসেবে বিশ্বের অন্যতম সেরা হ্যাকার ‘মাজ’ কে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে।

পিটার জাটকো যিনি ‘মাজ’ নামেই হ্যাকার মহলে বেশি পরিচিত, টুইটারের প্রকৌশলগত ভুল পদ্ধতি থেকে শুরু করে ভুল তথ্য পর্যন্ত যাবতীয় বিষয় মোকাবিলা করবেন বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

টুইটারের কাঠামো ও চর্চা পরিবর্তনের প্রস্তাবনা তৈরির দায়িত্ব দিয়ে সংস্থাটি সোমবার নিরাপত্তা প্রধান হিসেবে পিটার জাটকোর নাম ঘোষণা করে।

জাটকো টুইটারের প্রধান নির্বাহী জ্যাক ডরসির আহ্বানে সাড়া দিয়ে জানিয়েছেন, তিনি ৪৫ থেকে ৬০ দিনের পর্যালোচনা শেষে এর মূল নিরাপত্তা কার্যক্রম পরিচালনা করবেন।

একান্ত সাক্ষাত্কারে জাটকো জানান, তিনি টুইটারের তথ্য নিরাপত্তা, সাইটের পূর্ণতা, হার্ডওয়ার নিরাপত্তা, প্ল্যাটফর্মের অখণ্ডতা পরীক্ষা করবেন। প্ল্যাটফর্মের অপব্যবহার ও কারচুপি থেকে শুরু করে প্রকৌশল পদ্ধতি সম্পর্কেও তিনি পর্যালোচনা করবেন।

জাটকো সম্প্রতি অনলাইন পেমেন্ট সাইট স্ট্রাইপের নিরাপত্তা ব্যবস্থার দায়িত্বে ছিলেন। এর আগে তিনি গুগলের একটি বিশেষ প্রকল্পে কাজ করতেন। প্রকল্পটিতে পেন্টাগনের ডিফেন্স অ্যাডভান্স রিসার্চ অ্যান্ড প্রোজেক্টস এজেন্সি (ডিআরপিএ) এর সাইবার সিকিউরিটি সম্পর্কিত প্রকল্পের অনুদান তদারকি করা হতো।