‘চোরের ভিটা’ স্কুলের নাম পরিবর্তনের উদ্যোগ

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩, ২০২০ | আপডেট: ৯:০৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩, ২০২০

নেত্রকোনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নাম ‘চোরের ভিটা’ হওয়ায় বিপাকে সচেতন মহল। আর তাই নেয়া হয়েছে নাম পরিবর্তনের উদ্যোগ। সোমবার (০৩ আগস্ট) দুপুরে জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে নতুন নামের প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। নতুন করে ‘আলোর ভুবন’ নামটি প্রস্তাব করা করেছেন জেলা প্রশাসক মঈন উল ইসলাম।

স্কুলটি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার জারিয়া ইউনিয়নের চোরের ভিটা গ্রামে অবস্থিত। ১৯৯১ সনে এলাকায় শিক্ষার প্রসার ঘটাতে এটি প্রতিষ্ঠিত করেন এলাকার কয়েকজন শিক্ষানুরাগী। দীর্ঘদিন পর বিদ্যালয়ের নাম নিয়ে সচেতন মহলে উদ্বেগ উৎকণ্ঠার সৃষ্টি হলে অবশেষে প্রশাসন কার্যকরী উদ্যোগ নিয়েছে।

নতুন নাম প্রস্তাবের ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম জানান, গ্রামের নামেই সাধারণত বেশিরভাগ সরকারি স্কুলগুলো প্রতিষ্ঠা করা হয়।
সে কারণেই হয়তো এটিও হয়ে গেছে। গ্রামের এমন নাম কেনই বা রাখা হলো এটি আসলে বোধগম্য নয়।

এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয়ের জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লাহ জানান, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে একটি ছবিতে স্কুলের এমন নাম দেখেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আক্রাম আল হোসেন। তিনি আমাদেরকে ফোন দিয়ে বিস্তারিত জেনে নাম পরিবর্তনের বিষয়ে প্রস্তাব পাঠাতে নির্দেশ দেন। আমরা ‘আলোর ভুবন’ নামটি প্রস্তাবনা আকারে পাঠিয়েছি।

উল্লেখ্য, স্কুলটিতে বর্তমানে ৮০ জন ছেলে ও ৯৯ মেয়ে অর্থাৎ মোট ১৭৯ জন শিক্ষার্থী রয়েছে।