চোর-বাটপারদের ভোট দিবেন না: রাষ্ট্রপতি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮ | আপডেট: ১১:০৫:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮

এই যে নির্বাচন আসছে, এ নির্বাচন নিয়ে আপনাদের চিন্তা করতে হবে। দল হিসাবে যদি ভাবতে হয়, তবে কোন দলকে ভোট দিলে এলাকার উন্নয়ন হবে, দেশের উন্নয়ন হবে, সেই দলকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করুন।

চোর-বাটপার ও যারা নিজেদের আখের গোছাতে এমপি, মন্ত্রী হয় তাদের ভোট দিয়েন না। পাশাপশি ওই দলগুলোকে বলবো, যারা যোগ্য ও সৎ এবং দালালী করেনা, বাটপারি করে না এমন লোকজনকে যেন মনোনয়ন দেয়।

বুধবার বিকেলে নিজ নির্বাচনী এলাকা কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম) এর নিজ জন্মভূমি মিঠামইন উপজেলা সদরে মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত গণসংবর্ধনায় দেয়া বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি হামিদ মিঠামইনবাসীর উদ্দেশে বলেন, “আমি কখনও ভুলিনি আমি একটি কৃষক পরিবারের ছেলে। আমি আমার শেকড়কে ভুলতে পারব না। যারা শেকড় ভুলে যায় তারা ভালো মানুষ হতে পারে না।

“৭০ সাল থেকে রাজনৈতিক জীবনে আমি অনেক কিছু সহ্য করেছি এবং আপনাদের ভালোবাসা ও ভোটে এমপিও হয়েছি। তারপর ডেপুটি স্পিকার, স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা এবং পরপর দুবার রাষ্ট্রপতি হয়েছি।”

রাষ্ট্রপতি হওয়ার পরও তার মধ্যে কোনো পরিবর্তন আসেনি দাবি করে হামিদ বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে হাওরবাসীকে কেউ অবমূল্যায়ন করবে এমন কোনো কাজ তিনি করেননি।

মিঠামইন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুস সাহিদ ভ’ইয়াঁর সভাপতিত্বে বেলা ৪টায় শুরু হওয়া গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সাংসদ রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুল আহসান শাহজাহান ও সাধারণ সম্পাদক এম এ আফজলসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

দুপুর আড়াইটায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ হেলিকপ্টারযোগে মিঠামইন অবতরণ করেন। পরে তিনি উপজেলা পরিষদ ডাকবাংলোয় গার্ড অব অনার গ্রহণ করেন। ডাকবাংলোয় কিছুক্ষণ অবস্থান শেষে তিনি মিঠামইন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩৩ থেকে ৫১ শয্যায় উন্নীতকরণসহ মোট ৬টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। সন্ধ্যার পরে তিনি ‘রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মিলনায়তনে’ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা, বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যম ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন।

রাতে তিনি নিজ বাড়িতে রাত্রযাপন এবং বৃহস্পতিবার মিঠামইনে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন ও হাজী তায়েব উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে সুবর্ণ জয়ন্তি অনুষ্ঠানে যোগদান করার কথা রয়েছে। ২৮ সেপ্টেম্বর বিকালে রাষ্ট্রপতির গণভবনে ফেরার কথা রয়েছে। গত সোমবার ৫ দিনের সফরে কিশোরগঞ্জে আসেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।