ছাগলের গায়ে ‘আল্লাহ’র নাম! সাড়ে ৯ লাখে বিক্রি

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৯ | আপডেট: ১:১২:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৯

কোরবানির উদ্দেশ্যে কয়েকদিন ধরেই ভারতের বাজারে বিভিন্ন পশু কেনাবেচার বাজারে ভিড় জমাচ্ছিলেন ক্রেতারা। ছাগল থেকে শুরু করে বাজারে বেশ চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছিল অন্যান্য পশুও। বিক্রেতার সঙ্গে দরদাম করে নিজের পছন্দ মতো পশু বাড়ি নিয়ে যাচ্ছেন সবাই। এরই মাঝে ভারতের উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরের বাজারে গিয়ে চোখ কপালে উঠল ক্রেতাদের। একটি ছাগলের গায়ে নাকি ‘আল্লাহ’র নাম লেখা রয়েছে! আসলে ছাগলটির রঙই এমন। দেখে মনে হয় যেন আরবিতে আল্লাহ শব্দটি ছাপা রয়েছে তার গায়ে।

সালমান নামে ওই ছাগলটি আট লাখ টাকায় (বাংলাদেশি ৯ লাখ ৪৭ হাজার টাকা) বিক্রি হয়েছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরের বাজারে।

কলকাতার দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোরবানির উদ্দেশ্যে কয়েকদিন ধরেই দেশের বিভিন্ন পশু হাটে ভিড় জমাচ্ছিলেন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা। ছাগল থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন বাজারে বেশ চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছিল অন্যান্য পশুও।

বিক্রেতার সঙ্গে দরদাম করে নিজের পছন্দ মতো পশু বাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন সবাই। এরই মাঝে গোরক্ষপুরে বাজারে গিয়ে চোখ কপালে উঠল ক্রেতাদের।একটি ছাগলের গায়ে নাকি আল্লার নাম লেখা রয়েছে।

আসলে ছাগলটির রংই এমন। দেখে মনে হয় যেন আরবিতে আল্লা শব্দটি ছাপা রয়েছে তার গায়ে। ছাগলটি শেষপর্যন্ত বিক্রি হল আট লাখ টাকায়।

ওই ছাগলের মালিক গোরক্ষপুরের পশু ব্যবসায়ী মহম্মদ নিজামুদ্দিন বলেন, ‘ছাগলটির শরীরে জন্ম থেকেই প্রাকৃতিকভাবে উর্দুতে আল্লা লেখা ছিল। ছাগলটিকে ঈশ্বর নিজের দূত হিসেবে পাঠিয়েছে। তাই ওর শরীরে থাকা লোমে আল্লা শব্দটি লেখা আছে। ওকে কোরবানি করলে গ্রাহকের মনস্কামনা পূরণ হতে পারে। তাই চড়েছে দাম।’

তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন ছাগলটির রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ৮০০ টাকা করে খরচ হতো। নিজের জন্যও অত টাকা খরচ করিনি। তাই ৯৫ কেজি ওজনের ওই ছাগলটি দাম আট লাখ টাকা রেখেছিলাম।’