ছাত্রলীগ প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারির কি দায়িত্ববোধ নেই, প্রশ্ন ছাত্রলীগ নেত্রীর

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৫৩:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০১৯
ছবিঃ সংগৃহিত

গতকাল শনিবার ছিল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলন। শনিবার বেলা ১১টার পরিবর্তে সম্মেলন শুরু হয় বিকাল তিনটায়।

এদিন, সম্মেলন চলাকালে প্রচণ্ড গরমে হিটস্ট্রোকে সুলতান মো. ওয়াসি নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীর হিটস্ট্রোকে মৃত্যু হয়। যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের গত কমিটির সদস্য জারিন দিয়া। পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হলো।

কিছু কিছু মৃত্যুর সংবাদ মেনে নেওয়া সত্যি কষ্টকর। এই গরমে ছেলেটি স্লোগান দিতে দিতে হিটস্ট্রোকে মারা গেছে। ঐ দিন ছিল জবি ছাত্রলীগের সম্মেলন।

সকাল ১১টায় প্রোগ্রামের সময়সূচি থাকলেও শুরু হয় বিকাল ৩টায়। সময় মত প্রধান অতিথিবৃন্দ চলে আসলেও প্রেসিডেন্ট সেক্রেটারি আসেনি। এই গরমের মধ্যে পোলাপানদের ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করানোর মানেটা কি! শুধু জবিতে না; প্রায় প্রোগ্রামেই তাদের এভাবে দেরি করার অভ্যাসটা আছে।

আবার যখন ছেলেটি অসুস্থ হয়ে গেল তাকে কি নিয়ে যাওয়ার মত কিছুই/কেউ ছিলো না? প্রোগ্রামে শত শত বাইক-গাড়ি ছিল। এত এত পোলাপান। তাদের কথা না হয় বাদই দিলাম; প্রেসিডেন্ট-সেক্রেটারির কি দায়িত্ববোধ নেই?

ফেসবুকে দেখি আপনারা রিক্সাওয়ালা, ফেরিওয়ালা, মুরগীওয়ালা, গরুওয়ালা দুনিয়ার সবাইকে সেলফিবাজী করে সাহায্য করে পোস্ট করছেন। সেখানে চোখের সামনে নিজের কর্মীদের সাহায্য করতে গেলেন না কেন?

এখন ফেসবুকের ওয়ালে বড় বড় করে কষ্টের পোস্ট মারছেন। তার মানে কেউ মারা গেলে আপনাদের মনে কষ্টবোধটা আসে! বাহ! ছেলেটির মৃত্যু স্বাভাবিকভাবে হলেও দায়িত্ববোধের অভাবে অনেকটাই অস্বাভাবিক লাগছে।