ছাদ ফুটো হয়ে পড়ল উল্কাপিণ্ড, কোটিপতি যুবক

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:৪৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০২০ | আপডেট: ৬:৪৭:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৯, ২০২০

ভাগ্য অনেক সময় মানুষকে ধনী থেকে গরীব আবার রাতারাতি গরীব থেকে ধনীতে পরিণত করতে পারে। অনেক সময় লটারি কিনে এক রাতেই কোটিপতি হয়ে যায় মানুষ। কিন্তু এবার ঘটেছে ভিন্ন এক ঘটনা। আকাশ থেকে একটি উল্কাপিণ্ড পড়েছিল বাড়ির ছাদে। আর তাতেই কোটিপতি বনে গেলেন এক যুবক।

ইন্দোনেশিয়ার বাসন্দিা জোসুয়া হুটাগালানগু। তার বয়স ৩৩ বছর। জোসুয়া নিজের বাড়িতে কাজ করলেন। হুট করেই আকাশ থেকে তার বাড়িতে পরে এমন এক বস্তু, যা দেখে তিনি কিছুটা অবাক হয়েছিলেন। কিন্তু সেই অবাক করা বস্তুই তাকে দরিদ্র থেকে সোজা ১০ কোটির মালিক বানিয়ে দিয়েছে।

এ ঘটনাটি গত আগস্টে ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রার কোলাঙ্ক এলাকায় ঘটেছে।

এই উল্কা টুকরাটি প্রায় ৪০০ বছরের পুরোনো। এটির বাজারে দাম ১৮ লাখ ডলার। টাকায় ১৫ কোটি টাকার বেশি। এটি বিক্রি করে জোসুয়া পেয়েছে ১৫ কোটি টাকা। বিরল প্রজাতির এই উল্কাটির প্রতি গ্রাম ৮৫৭ ডলারে বিক্রি হয়েছে। এক সংগ্রহকারী এটি কিনেছেন।

ফেসবুকে এই পোস্ট করে জোসুয়া হুটাগালাঙ্ক লিখেছিলেন, ‘হঠাৎ আকাশ থেকে একটি কালো পাথরের মতো পড়েছিল। আমাকে অবাক করেছে। তবে তা যা–ই হোক না কেন, আশা করি আমাদের পরিবারের জন্য এটি একটি ভালো লক্ষণ।’

জোসুয়া জানিয়েছেন, প্রথম যখন এটি পড়ে তখন বাড়িটা যেন ঝাঁকি খেল। ছাদ ফেটে পড়ার পর এটি অনেক গরম ছিল। কিন্তু পরে এটি ঠান্ডা হয়ে যায়। উল্কা বেচে যে অর্থ পেয়েজেন, তা দিয়ে এলাকায় চার্চ করতে চান জোসুয়া।

বিক্রির আগে বিরল বস্তুটি দেখতে জোসুয়ার বাড়িতে রীতিমতো ভিড় লেগে গিয়েছিল। জোসুয়া হুটাগালাঙ্ক বলেন, ‘অনেকে কৌতূহল থেকে পাথরটি দেখতে আমাদের বাড়িতে এসেছিলেন।’

জোসুয়ার বাড়িতে উল্কা পড়ার দিন আশপাশের এলাকায় আরও তিনটি উল্কা পড়েছে।