ছোট পোশাক পরা মেয়েদের মেরে ফেলা উচিত: ভারতীয় পুলিশ কর্মকর্তা

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯ | আপডেট: ১২:১৮:পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

ভারতের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ছোট পোশাক পরা মেয়েদের খুন করা উচিত।

হায়দরাবাদে তরুণী পশু চিকিৎসক গণধর্ষণ ও নৃশংস হত্যাকাণ্ড ও উন্নাওয়ে গণ ধর্ষিতাকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার ঘটনায় ভারতজুড়ে তৈরি হওয়া ক্ষোভের মধ্যেই ওই পুলিশ কর্মকর্তার এ ধরনের মন্তব্য করলেন।

দা ওয়াল নামে ভারতীয় এক গণমাধ্যম জানায় গুরুগ্রাম পুলিশের ওই অফিসারের মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

ধর্ষণের মতো নারকীয় ঘটনা ঘটার পেছনে মেয়েদের পোশাকই দায়ী, নানাভাবে এটা প্রমাণ করার চেষ্টা করে ওই পলিশ কর্মকর্তা বলেন, ছোট পোশাক পরা মেয়েদের সঙ্গে এমনটাই হওয়া উচিত। হয় ওদের বাড়ির লোকজন খুন করবে, না হয় বাইরে লোক।

গুরুগ্রাম পুলিশের ওই অফিসারের কথায়, আমার মনে হয় ধর্ষণ বা গণধর্ষণ কখনোই জোরজবরদস্তি হয় না। উভয়েরই সম্মতি থাকে। একহাতে তো আর তালি বাজে না। পুরুষরা রাক্ষস নয়। বরং মেয়েরাই যথার্থ শিক্ষা পায় না পরিবারের থেকে।

কীভাবে পোশাক পরতে হয় তাদের শেখানো হয় না। মহিলাদের পোশাক দিন দিন ক্রমশই উত্তেজক হয়ে উঠছে, শালীনতার মাত্রা ছাড়াচ্ছে। তাই এই ধরনের ঘটনাও দিন দিন বাড়ছে।

তার কথায়, মহিলাদের এমন ছোট পোশাক দেখলেই মাথা গরম হয়ে যায়। হুডা সিটি সেন্টারে গিয়ে দেখবেন মেয়েরা কী ধরনের পোশাক পরে আসে। একটি মেয়ে এমন পোশাক পরেছে যা আমি জীবনে দেখেনি। পোশাকের পা থেকে কোমর অবধি পুরো কাটা। মেয়েটার বুকে দু’টো ট্যাটু, স্তন দেখা যাচ্ছে। পরিবারের উচিত এই মেয়েদের মেরে ফেলা।