জাঁকজমকপূর্ণভাবে কুবির সাংবাদিকতা ডিপার্টমেন্টের বিভাগ দিবস পালন

প্রকাশিত: ৪:৫৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯ | আপডেট: ৪:৫৭:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯

আবু নাঈম, কুবি প্রতিনিধি: জাঁকজমকপূর্ণ ও উৎসব মূখর পরিবেশে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৪র্থ বিভাগ দিবস উদযাপন করা হয়েছে। গতকাল বৃহঃস্পতিবার সারাদিনব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রা,সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ নানা আয়োজনের মধ্যেদিয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

সকাল ১১টার দিকে কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ভবনের সামনে থেকে এক আনন্দ শোভাযাত্রার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্ধোধন করা হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিজ্ঞান ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

পরে কলা অনুষদের হলরুমে ‘সাংবাদিকতা ও যোগাযোগ অধ্যায়ন: পেশা কি শুধুই সাংবাদিকতা?’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার অধ্যাপক ড. গোলাম রহমান; এবং আলোচক হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনেরর নির্বাহী বার্তা সম্পাদক খালেদ মুহিউদ্দিন।

প্রধান আলোচক তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকদের তথ্য নির্ভর হতে হবে। আর সাদাকে সাদা, কালো কে কালো বলার যোগ্যতা থাকতে হবে। এ যোগ্যতা বলেই সাংবাদিকতা করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে দেশে বহুমাত্রিক মিডিয়া গড়ে উঠেছে।এই খাতে দক্ষ লোকদের প্রয়োজন।গণমাধ্যমগুলোর বিভিন্ন পর্যায়ে চার হাজারের ও বেশি কর্মী দরকার। যেখানে সাংবাদিকতার শিক্ষার্থীররা ভাল করতে পারে।

খালেদ মুহিউদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকতা হলো বাজারে যা প্রচলিত তার বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করার বিদ্যা। এ বিভাগের শিক্ষার্থীরা নানা পেশায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পারে। গণমাধ্যমের পাশাপাশি বিজ্ঞাপন সংস্থা, জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রোগ্রাম ব্যবস্থাপনাছাড়াও যোগাযোগ প্রতিষ্ঠানগুলোকে পেশা হিসেবে বেছে নিতে পারবে।

গণযোগাযোগ ও বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. বেলাল হোসাইনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়েরের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে যমুনা টেলিভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার নাজমুল হোসাইন উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন,সাংবাদিকতা বর্তমানে একটি বিপুল চাহিদাসম্পন্ন পেশা।এই পেশায় মেধাবী লোকদের সমন্বয়ে একটি ঐতিহ্য গড়ে উঠেছে।

উপাচার্য আরো বলেন,ভুয়া সংবাদের কারণে একজন মানুষকে নানাভাবে ভুগতে হয়।তাই সাংবাদিকদের এই বিষয়ে জোর দেয়া প্রয়োজন বলে মনে করি।

বিকালে বিভাগেরশিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় এক মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের একমাত্র ব্যান্ডদল ‘প্লাটফর্ম’এর শিল্পীরা গান পরিবেশনা করবেন। এসময় নাচ, গান, আবৃতির ছন্দে মেতে ওঠে শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের পহেলা ফেব্রুয়ারি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮তম বিভাগ হিসাবে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়।