জামিন পেলেও এখনই মুক্তি পাচ্ছেন না মিন্নি

প্রকাশিত: ১২:৪১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩০, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৪১:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩০, ২০১৯
ফাইল ছবি

রগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেফতার তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

মিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না- এমন রুলের শুনানি শেষে হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ আদেশ দেন।

তবে জামিন পেলেও এখনই কারাগার থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না মিন্নি। আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে মিন্নিকে জামিনে মুক্ত করতে এখনও চার থেকে পাঁচদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট সূত্র।

হাইকোর্ট মিন্নির জামিনের আদেশ দিয়েছেন। এই আদেশের কপি ডাকযোগে বরগুনার আদালতে পৌঁছাতে হবে। এই আদেশে মিন্নির জামিনের বিষয়ে বরগুনার যেকোনো একটি আদালতের কথা উল্লেখ থাকবে।

সেই আদালতে মিন্নির জামিনের জন্য মিস কেসের মাধ্যমে বন্ড দাখিল করতে হবে। আদালতে মিস কেস দাখিলের পর আইনানুগভাবে মিনির জামিনের আদেশ পৌঁছাবে বরগুনা কারাগারে। এরপর মিন্নি কারাগার থেকে মুক্তি পাবে।

তিনি আরও বলেন, আগামীকাল শুক্রবার ও পরেরদিন শনিবার আদালত বন্ধ। আজ যদি বিচারপতিদ্বয় মিন্নির জামিন আদেশে স্বাক্ষরও করেন, তাহলে স্বাক্ষরিত ওই জামিন আদেশ ডাকযোগে সোমবার কিংবা মঙ্গলবার বরগুনা আদালতে পৌঁছাবে।

কেননা শুক্রবার ও শনিবারও ডাকবিভাগ বন্ধ থাকে। তাই আজ মিন্নির জামিনের আদেশ হলেও আগামী সোমবার কিংবা মঙ্গলবারের আগে কারাগার থেকে মিন্নির মুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম।

এক প্রশ্নের জবাবে আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, জামিন আদেশের মাধ্যমে যেসব রুল নিষ্পত্তি হয়, সেসব জামিন সাধারণত স্থায়ী জামিন হয়। জামিনপ্রাপ্ত ব্যক্তি জামিন আদেশে উল্লিখিত শর্ত ভঙ্গ করলে তার জামিন বাতিল হয়ে যায়। যেহেতু মিন্নির বিষয়ে জামিন আদেশের মাধ্যমে রুল নিষ্পত্তি হয়েছে, তাই জামিন আদেশে উল্লিখিত শর্ত ভঙ্গ না করলে মিন্নি স্থায়ী জামিনে থাকবে।

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা কারাগারের তত্ত্বাবধায়ক মো. আনোয়ার হোসেন বলেছেন, উচ্চ আদালত কারও জামিনের আদেশ প্রদান করলেও সেই আদেশ কারাগারে পৌঁছাতে আরও আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হয়। এ জন্য সময় লাগে। সকল আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে মিন্নির জামিন আদেশ কারাগারে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গে মিন্নি কারাগার থেকে মুক্তি পাবেন।