জার্সিতে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ প্রতীক নিয়ে খেলবে ক্যারিবিয়ানরা

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:১৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৬:১৪:অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের বর্ণবাদের শিকার হয়ে অকালে প্রাণ হারিয়েছেন সাবেক কৃষ্ণাঙ্গ বাস্কেটবল তারকা জর্জ ফ্লয়েড। সেই হত্যার ভিডিও প্রকাশের পর থেকে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন। ফুটবল-ক্রিকেট থেকে ‍শুরু করে সকল ক্রীড়াবিদরা এ প্রতিবাদে সমর্থন দিয়েছেন।

ক্রীড়াবিদদের মধ্যে বর্ণবাদ বিরোধী প্রতিবাদে এগিয়ে রয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আইসিসির একটি আইনেও বর্ণবাদ নিয়ে দেশটির ক্রিকেট তারকারা প্রশ্ন তুলেছেন। এবার বিশ্বব্যাপী বর্ণবাদ বিরোধী প্রতিবাদের অংশ হিসেবে ইংল্যান্ডে টেস্ট সিরিজে নিজেদের জার্সিতে ‘ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটার’ প্রতীক ব্যবহার করবেন ক্যারিবিয়ানরা। বর্ণবাদ বিরোধী এমন প্রতীক ব্যবহারে অনুমতিও দিয়েছে আইসিসি।

৮ জুলাই (বুধবার) স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলতে নামবে সফররত ওয়েস্ট ইন্ডজ ক্রিকেট দল। এর আগে ১ জুলাই একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে ক্যারিবিয়ানরা। ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ টেস্ট ম্যাচ দিয়েই করোনা পরবর্তী মাঠে ফিরতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট।

বিশ্বব্যাপী বর্ণবাদ বিরোধী প্রতিবাদের অংশ হিসেবে জার্সিতে বিশেষ প্রতীক ব্যবহারের বিষয়টি ইংল্যান্ড সফর বিষয়ক প্রথম সংবাদ সম্মেলনেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন হোল্ডার। এবার এক বিবৃতি দিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রিমিয়ার লিগেও ‌‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ প্রতীক ব্যবহার করেছে তারা। ছবি : গেটি ইমেজ

রোববার (২৮ জুন) এক বিবৃতিতে ক্যারিবিয়ানদের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি সংহতি প্রকাশ করা ও সচেতনতা সৃষ্টিতে সহায়তা করা আমাদের দায়িত্ব। খেলাধুলার ইতিহাসে তো বটেই, ক্রিকেট ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের জন্যও এটি গুরুত্বপূর্ণ একটি মুহূর্ত।’

তিনি বলেন, ‘আমরা ইংল্যান্ড এসেছি উইজডেন ট্রফি (সিরিজের নাম) ধরে রাখতে। কিন্তু বিশ্বজুড়ে যা চলছে, সেটি নিয়েও আমরা সচেতন। ন্যায়বিচার ও সমতার জন্য লড়াইটা আমাদেরও। এ সিদ্ধান্ত (ব্ল্যাক লাইভ ম্যাটার লিখা লোগো) আমরা স্রেফ নিতে হয় বলেই নেইনি। গায়ের রঙ দেখে লোকে যখন বিচার করে, আমরা জানি তখন কেমন লাগে। এটির আবেদন আসলে সীমানা ছাড়ানো।’

জেসন হোল্ডার আরও বলেন, ‘অবশ্যই সমতা থাকতে হবে এবং একতাবদ্ধ হতে হবে। মানুষ হিসেবে সেটি না পাওয়া পর্যন্ত আমরা থামতে পারি না। সম-অধিকার প্রতিষ্ঠার কোনো পথ আমাদের বের করতেই হবে, লোকে যেন গায়ের রঙ বা জাতিগত পরিচয়ে কাউকে ভিন্ন চোখে না দেখে।’

এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়াও বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনে সংহতি জানাতে সিরিজে ইংলিশ ক্রিকেটাররাও উদ্যোগ নেবেন বলে জানা গেছে।