জুড়ীতে দরিদ্র শীতার্তদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কম্বল বিতরণ করলেন থানার ওসি জাহাঙ্গীর

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:১৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০১৯ | আপডেট: ৬:১৩:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০১৯

আব্দুর রব, বড়লেখা (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: জুড়ী উপজেলার বিভিন্ন চা বাগানের দরিদ্র শীতার্ত চা শ্রমিকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কম্বল বিতরণ করলেন থানার ওসি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার। কনকনে শীতে জবুতবু অসহায় চা শ্রমিকদের মাঝে রাতের আঁধারে শীতবস্ত্র দিয়ে মানবতার নজির স্থাপন করলেন এ পুলিশ অফিসার।

জানা গেছে, পুলিশ ইন্সপেক্টর মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বৃহস্পতিবার রাতে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ক্রয় করা শতাধিক কম্বল নিয়ে জুড়ীর ছোটধামাই চা বাগান, সোনারূপা চা বাগান ও কৃষ্ণনগর গ্রামের শ্রমিক বসতি এলাকায় প্রবেশ করেন। বাড়ি বাড়ি ঘুরে শীতে কাতর দরিদ্র নারী-পুরুষদের বাছাই করে তিনি তাদের হাতে কম্বল তুলে দেন। শুধু তাই নয়, নিজ হাতে অনেক শীতার্ত শ্রমিকের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দেন। শুক্রবার তিনি উপজেলার আরো কয়েকটি এলাকার দরিদ্র শীতার্তদের মাঝে আরো ১০০টি কম্বল বিতরণ করেছেন।

সোনারূপা চা বাগানের দরিদ্র চা শ্রমিক কমলা মুন্ডা, ছোটধামাই চা বাগানের শ্রমিক লীলা বিশ্বাস, কৃষ্ণনগর গ্রামের পুনি রিকমুন প্রমূখ জানান, এত বড় একজন পুলিশ অফিসার হয়েও তিনি আমাদের বাড়িতে পৌছে শীতের কষ্ট দেখে কম্বল বিতরণ করেছেন। এভাবে কেউ আমাদের খোঁজ নিবে তা ভাবতেও পারিনি। অতীতে কেউ এভাবে আমাদের পাশে এসে সমস্যার কথা জানতে চায়নি। ‘জুড়ীর ওসি স্যার আমাদের ঘুম থেকে তুলে শীত নিবারনের জন্য কম্বল দিয়েছেন, এজন্য সৃষ্টি কর্তার কাছে প্রার্থনা করছি তিনি যেন তাকে অনেক বড় করেন।’

জুড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোই প্রকৃত মানবসেবা। অনেক চা শ্রমিক রয়েছে যারা বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। এ মুহুর্তে অসহায় মানুষদের শীতবস্ত্র জরুরী মনে করেই তিনি ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৩০০ কম্বল বিতরণের সিদ্ধান্ত নেন। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ২০০ কম্বল বিতরণ শেষ করেন। আজ শনিবার অবশিষ্ট ১০০ পিস কম্বল বিতরণ সম্পন্ন করবেন।