ঝিনাইদহে ২০ অবৈধ ইটভাটা গুড়িয়ে দিল প্রসাশন

৪ ভাটাকে ২৪ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত: ৮:২৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১ | আপডেট: ৮:২৮:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

ঝিনাইদহে গুড়িয়ে দেওয়া হলো ২০ অবৈধ ইটভাটা। বুধ ও বৃহস্পতিার লাইসেন্স ও ছাড়পত্রবিহীন এসব ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করে পরিবেশ অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত শৈলকুপা উপজেলা ও পৌর এলাকায় অভিযান চালিয়ে দশটি অবৈধ ইটভাটা গুড়িয়ে দেওয়া হয়। এর আগে বুধবার সদর উপজেলার গিলাবাড়ীয়া থেকে এ অভিযান শুরু করে। এদিন সদর ও হরিণাকুন্ডু উপজেলার দশটি ইটভাটা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র না থাকাসহ নানা অভিযোগে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। এসময় আরো চার ইটভাটায় প্রায় ২৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তরের এনফোর্সমেন্ট টিমের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোজিনা আক্তার ও যশোর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাঈদ আনোয়ার এ উচ্ছেদ অভিযানের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

যশোর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাঈদ আনোয়ার বলেন, বুধবার থেকে এ অভিযান শুরু করা হয়েছে। যে সব ইটভাটাগুলোতে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের অনুমোদন নেই। এসব ইটভাটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

প্রসঙ্গত, জেলায় ইট ভাটা রয়েছে ১২৯ টি। এরমধ্যে অনুমোদন কৃত ভাটা রয়েছে মাত্র সাতটি। কৃষি বিভাগের তথ্যমতে, জেলায় গত পাঁচ বছর আগে আবাদ যোগ্য জমির পরিমাণ ছিল এক লক্ষ ৫৫ হাজার ২ শ’ ৩৫ হেক্টর আর বর্তমানে তা কমে দাড়িয়েছে এক লক্ষ ৫০ হাজার ২ শ’ ৩৫ হেক্টরে। ইট ভাটার জন্য প্রতিদিন গড়ে ৩ থেকে ৫ হাজার ট্রলি মাটি কাটা হচ্ছে জেলার বিভিন্ন এলকার মাঠের জমি থেকে।