টিকা নিয়েও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে হতে পারে সংক্রমণ

প্রকাশিত: ৮:১৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১ | আপডেট: ৮:২০:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১

চলমান করোনা ভ্যাকসিন কার্যক্রমে ব্যবহৃত কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ গ্রহণের ন্যূনতম দুই সপ্তাহ পর থেকে সর্বোচ্চ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয়। এ সময়ে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে ভ্যাকসিন নেয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা টিকা নেয়ার কারণে করোনা শনাক্তকরণ প্রক্রিয়ায় ‘পজিটিভ’ হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে টিকা নেয়ার পর ন্যূনতম দুই সপ্তাহ পরে ভাইরাসের সর্বোচ্চ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয়। তাই ভ্যাকসিন গ্রহণের আগে ও পরেও মাস্ক ব্যবহারসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে।

অগ্রাধিকার তালিকাভুক্ত এবং ৪০ বছর ও তার চেয়ে বেশি বয়সী সবাই টিকাদান কার্যক্রমে নিবন্ধন ও নির্ভয়ে টিকা নিতে পারেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

টিকা নেয়ার জন্য অনলাইনে সুরক্ষা অ্যাপ বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিবন্ধন করতে হবে।

এদিকে শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত দেশে প্রায় ৩০ লাখ মানুষ করোনা টিকা গ্রহণ করেছেন। টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ২৯ লাখ ৮৪ হাজার ৭৭৩ জন। এদের মধ্যে ১৯ লাখ ৩৭ হাজার ২৬ জন পুরুষ এবং ১০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৪৭ জন নারী রয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২৭ জানুয়ারি করোনার টিকা কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। ওইদিন ২১ জনকে টিকা দেয়া হয়। পরদিন রাজধানীর পাঁচটি হাসপাতালে ৫৪৬ জনকে পর্যবেক্ষণমূলক টিকা দেয়া হয়েছিল। এরপর গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশব্যাপী গণ টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। টিকা গ্রহণকারী ব্যক্তিদের মধ্যে এখনো তেমন কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবর পাওয়া যায়নি।