টিকিট নিয়ে নীলফামারীর উল্টো চিত্র ঢাকায়

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮ | আপডেট: ২:৪২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮

এই তো এক সপ্তাহ আগে ফুটবল ম্যাচের টিকিট নিয়ে নীলফামারীতে হয়ে গেলো হাহাকার। ২৯ আগস্টের বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার মধ্যেকার ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচটি দেখতে টিকিটের জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল মানুষ।

সবার ধারণা ছিল এ ম্যাচের সপ্তাহখানেক পর ঢাকার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপেও দর্শকদের আগ্রহ থাকবে; কিন্তু সাফ ফুটবলের টিকিট নিয়ে নীলফামারীর উল্টো চিত্র ঢাকায়। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ দেখার টিকিট বিক্রিতে সেভাবে সাড়াই পাচ্ছে না বাফুফে।

শনিবার থেকে সাফ সুজুকি কাপের টিকিট বিক্রি শুরু করেছে বাফুফে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের দুটি গেটের সামনে বাফুফের কর্মচারীরা টিকিট বিক্রি করছেন। পাশে, ‘এখানে সাফ সুজুকি কাপের টিকিট পাওয়া যায়’- লেখা কাগজও লাগিয়ে রাখা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের এখন দর্শকধারণ ক্ষমতা ২৫ হাজারের মতো। এর মধ্যে মাত্র ৭ হাজারের মতো টিকিট সাধারণ দর্শকদের জন্য রেখেছে বাফুফে। বাকি সব সৌজন্য তাদের অধিনস্ত বিভিন্ন ক্লাব, সংস্থা ও পৃষ্ঠপোষকদের জন্য। প্রতি ম্যাচে মাত্র ৭ হাজার টিকিট; দর্শক হুমড়ি খেয়ে টিকিট কিনবে- এমনই ধারণা করা হয়েছিল; কিন্তু টিকিট বিক্রির প্রথম দুই দিন জানিয়ে দিয়েছে, সাফ নিয়ে মানুষের আগ্রহ খুবই কম।

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ঢোকার ৩ নম্বর গেটে টিকিট বিক্রি করা বাফুফের এক কর্মকর্তা দিলেন হতাশ হওয়ার মতো তথ্য। দুই দিনে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের দুই স্পটে বিক্রি হওয়া টিকিট ২০০’ও পার হয়নি। বাফুফের ওই কর্মচারির তথ্য অনুযায়ী মানুষ টুকটাক যা টিকিট কিনছে তাও বাংলাদেশের ম্যাচের।

মঙ্গলবার পাকিস্তান ও নেপালের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে সাফ সুজুকি কাপ। প্রথম দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে ভুটানের বিরুদ্ধে। বাংলাদেশের অন্য দুই ম্যাচ ৬ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান ও ৮ সেপ্টেম্বর নেপালের বিরুদ্ধে। দর্শকরা বাংলাদেশের খেলার ৩ দিনের টিকিটই কিনছে।

বাফুফে অবশ্য আশা করছে, সোমবার থেকে টিকিট বিক্রি বাড়বে। টানা তিনদিন ছুটি থাকায় টিকিট বিক্রিতে এ মন্দা মনে করছেন টিকিট বিক্রেতারা।