টোকিও অলিম্পিক ও কাতার বিশ্বকাপে নিষিদ্ধই থাকলো রাশিয়া

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০২০ | আপডেট: ১২:৩৬:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডোপিং–বিরোধী সংস্থা (ওয়াডা) এর আগে চার বছর নিষিদ্ধ করেছিল রাশিয়াকে। কিন্তু আজ খেলাধুলা নিয়ে মামলা–মোকদ্দমা সমাধানের সর্বোচ্চ আদালত আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালত (সিএএস) সেই শাস্তি কমিয়ে দুই বছরে নামিয়ে এনেছেন।

পরিকল্পিত ডোপপাপের শাস্তি হিসেবে এতেও ক্ষতি খুব একটা কমছে না রাশিয়ার। আগামী বছর ২০২০ টোকিও অলিম্পিক, ২০২২ বেইজিং প্যারা অলিম্পিক এবং ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে অংশ নিতে পারবে না দেশটি। ২০২২ সালের ২১ নভেম্বর থেকে কাতারে শুরু হওয়ার কথা আগামী বিশ্বকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট।

২০১৯ সালে জানুয়ারির তদন্তে ডোপিংয়ের নমুনা নিয়ে কারসাজি করার অভিযোগ উঠেছিল রাশিয়ার বিপক্ষে। এ জন্য গত বছরের ৯ ডিসেম্বর সুইজারল্যান্ডের লুজানে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি-ডোপিং এজেন্সির (ওয়াডা) কার্যনির্বাহী কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে দেশটিকে চার বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়।

এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসের কাছে আপিল করে রাশিয়া।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের পর থেকে দেশ হিসেবে অ্যাথলেটিকসে নিষিদ্ধ রয়েছে রাশিয়া। ডোপিংয়ের দায়ে দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আসার পর ২০১৮ অলিম্পিকে ১৬৮ জন রাশিয়ান অ্যাথলেট নিরপেক্ষ পতাকা নিয়ে অংশ নিয়েছিলেন।