‘ট্রাম্পের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে প্যালেস্টাইনের সংকট ঘনীভূত’

প্রকাশিত: ৯:২৫ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০২১ | আপডেট: ৯:২৫:অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০২১

ফিলিস্তিন-ইসরায়েল দ্বন্দ্বে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে দুই দেশের মধ্যে চলমান সংঘাত বন্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শক্ত ভূমিকা প্রত্যাশা করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

আগের মার্কিন প্রশাসনের কিছু ভুল সিদ্ধান্তের কারণেই প্যালেস্টাইনে চলমান সংকট ঘনীভূত হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

সোমবার (১৭ মে) মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘তিনি (আর্ল মিলার) বলেছেন যে, তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে, এই সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য। কিন্তু আমি তাকে বিনীতভাবে মনে করিয়ে দিয়েছি যে, এর আগের মার্কিন প্রশাসনের কিছু সিদ্ধান্ত এই সমস্যাকে আরও ঘনীভূত করেছে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘জেরুজালেমে ইসরায়েলের রাজধানী পরিবর্তন করা এবং সেখানে মার্কিন দূতাবাস স্থাপনের সিদ্ধান্তকে ওআইসির সদস্য রাষ্ট্র হিসেবে নিন্দা জানিয়েছিল বাংলাদেশ। এ বিষয়গুলোর বিরোধিতা আমরা বলিষ্ঠভাবে করেছি, দুই বছর আগে। এই বিষয়গুলোকে আবারও পুরনো জায়গায় ফেরত নিয়ে যাওয়া খুবই কঠিন। কিন্তু এগুলো যে সংকটকে ঘনীভূত করেছে সেটি আমি তাকে বলেছি।’

এই ভুল সিদ্ধান্তগুলোকে হয়তো এখন ঠিক করা যাবে না জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘কিন্তু বর্তমানে যে মার্কিন প্রশাসন আছে, তাদের তড়িৎ সিদ্ধান্ত এই সংকটকে মোকাবিলায় সহায়তা করতে পারে।’

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘রাষ্ট্রদূত মিলার প্যালেস্টাইন বিষয়ে জানিয়েছেন যে, সেখানকার পরিস্থিতি তারা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন। আমি বলেছি, জাতিসংঘ এবং অন্যান্য রাষ্ট্র চেষ্টা করছে, করে যাবে কিন্তু আমরা মনে করি, যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখার সুযোগ আছে।’

আমরা সবসময়ে বলেছি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করতে হবে জানিয়ে শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘ মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেছেন— বাংলাদেশ সরকারের তো বটেই, সাধারণ মানুষের সেন্টিমেন্টও তারা জানেন, বোঝেন এবং তা আমলে নিয়ে তার সরকারকে জানাচ্ছেন।’