‘ট্রাম্পের শরীরে নীতির কোনও হাড়ই নেই’

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২:১৪ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২০ | আপডেট: ২:১৫:অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নিষ্ঠুরতায় মৃত্যু হয়েছে জর্জ ফ্লয়েডের। সাবেক এই কৃষাঙ্গ খেলোয়াড়ের করুণ মৃত্যুতে আবারও উঠে এসেছে বর্ণবৈষম্যের প্রসঙ্গ। এমন এক সময়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেব ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ। সংকট নিরসন নয়, তাঁর প্রতিটি পদক্ষেপ আরও উসকে দিচ্ছে ক্ষোভের আগুন। প্রতিটি কথায় নতুন করে সৃষ্টি হচ্ছে দাঙ্গা। এ নিয়ে তার ওপর বেজায় চটেছেন যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ। তাদেরই একজন মাইকেল ব্র্যাডলি। যুক্তরাষ্ট্রের মিডফিল্ডার রীতিমত ধুয়ে দিয়েছেন ট্রাম্পকে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে ‘পুরোপুরি ফাঁকা’ উল্লেখ করে ব্যাডলি জানিয়েছেন ‘ট্রাম্পের শরীরে নীতির কোনও হাড়ই নেই’। গত সাড়ে তিন বছরে ট্রাম্পের প্রতিটি সিদ্ধান্ত ‘সাংঘর্ষিক’ ও ‘বাজে’ বলে মনে করেন ৩২ বছর বয়সী মিডফিল্ডার। ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর যুক্তরাষ্ট্রকে সঠিক পথে ফেরানোর এটাকেই সঠিক সময় মনে করছেন জাতীয় দলের জার্সিতে ১৫১ ম্যাচ খেলা এই তারকা।

করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রের মৃতের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে। প্রাণঘাতী ভাইরাস নিয়েও ট্রাম্পে সমালোচনা চলছে দেশটিতে। এর মধ্যেই ফ্লয়েড হত্যায় উত্তপ্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি। নিজ দেশে এমন অবস্থা কিছুতেই মানতে পারছেন না ব্র্যাডলি। রাগ-ক্ষোভ সব উগড়ে দিয়েছেন তিনি ট্রাম্পের ওপর। মিডিয়া কনফারেন্স কলে টরেন্টো এফসি মিডফিল্ডার বলেছেন, ‘আমাদের এমন একজন প্রেসিডেন্ট, যিনি পুরোটাই ফাঁকা। তার শরীরে নীতির কোনও হাড়ই নেই।’

ট্রাম্পের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনের কঠোর সমালোচনা করেছেন ব্যাডলি, ‘কোনও নেতৃত্ব নেই। প্রেসিডেন্টের মধ্যে নেতৃত্ব নেই, রিপাবলিক সিনেটরদের কারও মধ্যে নেতৃত্ব নেই। তারা গত সাড়ে তিন বছর ধরে প্রেসিডেন্টের অবৈধ কাজ বসে বসে দেখছেন এবং তাকে সাহয্য করছেন।’

তবে এই অবস্থা আর চলতে দিতে চান না বরুসিয়া মনশেনগ্ল্যাডবাখ ও রোমার হয়ে খেলা মিডফিল্ডার। এজন্য প্রয়োজনীয় সবকিছু করতে প্রস্তুত তিনি, ‘আমি ক্ষুব্ধ, আমি ভীত, দুঃখিত এবং এই অবস্থার সমাধান করতে আমি যেকোনও কিছু করতে প্রস্তুত। কারণ এটার ইতি টানা দরকার। আমাদের সবাইকে একসঙ্গে সমাধান করতে হবে। যদি আমরা এটার সমাধান চাই, তাহলে ট্রাম্পের আর প্রেসিডেন্ট থাকা চলবে না, এটা একেবারে পরিষ্কার।’