ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে রক্তাক্ত কাঁটাতার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০১৯ | আপডেট: ১২:১৩:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৯, ২০১৯
সংগৃহীত ছবি

ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে সোহেল রানা বাবু (১৭) নামে এক বাংলাদেশি কিশোর নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে চলতি মাসেই বিএসএফের গুলিতে ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন সীমান্তে ৩ জন নিহত হয়েছেন।

সোমবার (২৮ জানুয়ারি) বিকাল সাড়ে ৪টার সময় এ ঘটনা ঘটে। নিহত কিশোর হরিপুর উপজেলার মারাধার গ্রামের একরামুল হকের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, পানিপথে কাজের জন্য প্রায়ই ভারতে অবৈধ ভাবে যাতায়াত করতো ওই কিশোর। রবিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকালে রাণীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় সীমান্তের ৩৭৩/২ এস পিলারের নিকট দিয়ে কাটা তারের বেড়ার উপর দিয়ে বাংলাদেশে আসার সময় বিএসএফ কিশোরকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে।

এতে কিশোর গুলিবিদ্ধ হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় তারকাটার বেড়ায় ঝুলেই তার মৃত্যু হয়। কিশোরের লাশ সন্ধ্যা পর্যন্ত বাংলাদেশ-ভারতের সীমান্ত এলাকার তারকাটার বেড়ায় ঝুলে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। বিএসএফের গুলির আতঙ্কে ওই সীমানায় কেউ যাওয়ার সাহস পায়নি। পরে সন্ধ্যায় বিএসএফ এসে লাশটি নিয়ে যায়।

রাণীশংকৈল থানার ওসি আব্দুল মান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলে আমার লোক পাঠানো হয়েছে। ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল তুহিন মাসুদ বলেন, বিএসএফকে অবগত করে পতাকা বৈঠকের জন্য পত্র পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ জানুয়ারি জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় সীমান্তে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর গুলিতে রাণীশংকৈল উপজেলার শাহানাবাদ গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম রাজু (২১) ও ২২ জানুয়ারি হরিপুর উপজেলার মিনাপুর সীমান্তে হরিপুর উপজেলার ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের তালডাঙ্গী গ্রামের আব্দুল তোয়াফের ছেলে জেনারেল (১৮) নিহত হয়।