ঢাবি-এ এস এন বোস-এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২১ | আপডেট: ৬:৪৩:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২১

বিশ্ববরেণ্য বিজ্ঞানী সত্যেন্দ্র নাথ বোসের ১২৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বোস সেন্টার ফর এ্যাডভান্সড স্টাডি এন্ড রিসার্চ ইন ন্যাচারাল সায়েন্সেসের উদ্যোগে আজ ১৩ জানুয়ারি ২০২১ বুধবার এক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন।

সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক ড. সুপ্রিয়া সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওয়েবিনারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-উপাচার্য(শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল এবং বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক ড. তোফায়েল আহমদ চৌধুরী বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

এতে মূল বক্তা ছিলেন ভারতের Tagore Centre for Natural Sciences and Philosophy-এর অধ্যাপক ড. পার্থঘোষ (Prof. Dr. Partha Ghose) এবং যুক্তরাষ্ট্রের Santa Fe Institute-এর অধ্যাপক ড. সিডনী রেডনার i(Prof. Dr. Sidney Redner)। এছাড়া, ওয়েবিনারে সেন্টারের প্রাক্তন পরিচালক অধ্যাপক শামীমা কে. চৌধুরী বক্তব্য রাখেন ।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বিজ্ঞানী অধ্যাপক এস এন বোসের অমর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে বলেন, তিনি বিজ্ঞান গবেষণায় বিশেষ করে পদার্থ বিজ্ঞানের মৌলিক গবেষণা ও শিক্ষা প্রসারে একজন নিবেদিতপ্রাণ শিক্ষক ও গবেষক ছিলেন।

১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই অধ্যাপক এস এন বোস তাঁর অসাধারণ গবেষণা কার্যক্রমের মাধ্যমে বিশ^বিখ্যাত বিজ্ঞানী আইনস্টাইনের সংস্পর্শে আসেন এবং আইনস্টাইনের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে পদার্থ বিজ্ঞানের গবেষণাকে আরও সমৃদ্ধ করে আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেন।

উপাচার্যবিজ্ঞানকে ভালভাবে আয়ত্ত্বেনেয়ার জন্য মাতৃভাষায় বিজ্ঞান চর্চার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে অন্য ভাষায় মৌলিক সৃষ্টি উপস্থাপনের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, সত্যেন বোস মৌলিক গবেষণা ও পারস্পরিক সহযোগিতার বিষয়টি আমাদের গভীরভাবে অনুধাবন করতে শিখিয়েছেন।

পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমেই সীমিত সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার সম্ভব বলে উপাচার্য উল্লেখ করেন। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়কে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে বোসের বৈজ্ঞানিক দর্শন ও শক্তিশালী মূল্যবোধকে ধারণ করে গবেষণা পরিচালনার জন্য বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীদের প্রতি উপাচার্য আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, অধ্যাপক এস এন বোস ১৮৯৪ সালে ১ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৭৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি পরলোক
গমন করেন।