তথ্য হালনাগাদ না করলে বন্ধ হবে কর্পোরেট সিম

প্রকাশিত: ৬:২৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০১৯ | আপডেট: ৬:২৫:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২১, ২০১৯

আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে কর্পোরেট গ্রাহকদের তথ্য হালনাগাদ করতে হবে। মোবাইল অপারেটরদের এ সময় বেঁধে দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এই সময়ের মধ্যে তথ্য হালনাগাদ করা না হলে সেসব সংযোগ স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বুধবার (২০ নভেম্বর) একটি গণবিজ্ঞপ্তিতে এই সতর্কতা জারি করেছে বিটিআরসি।

বিটিআরসির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ সংক্রান্ত প্রচারণা চালানো হচ্ছে যাতে গ্রাহকরা অপারেটরদেরকে এক্ষেত্রে সহযোগিতা করে, জানান বিটিআরসির এক কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তথ্য হালনাগাদ করা না হলে সেসব সংযোগ স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, কর্পোরেট সিমের ক্ষেত্রে একটি অফিসের কেবল একজন ফোকাল পয়েন্টের সকল তথ্য এবং বায়োমেট্টিক ভেরিফিকেশন হয়ে থাকে। আর বাকি যারা এই সব সিম ব্যবহার করেন তাদের কেবল নামের তালিকা জমা দিতে হয়।

এসব সিম যেহেতু নানা সময়ে নানান জনে ব্যবহার করেন সে কারণেই মাঝে মাঝেই তাদের তথ্য নেবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিটিআরসি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, মূলত নামসর্বস্ব প্রতিষ্ঠানের নামে কর্পোরেট ইস্যুকৃত সিম অনেক সময়েই উচ্চ মূল্যে কিনে চাঁদাবাজি, অপহরণকারী ও সন্ত্রাসী কাজে ব্যবহার করা হয় বলে অভিযোগ আছে।

গত বছরও র‌্যাবের অভিযানে এমন পাঁচ শতাধিত কর্পোরেট সিমসহ গ্রামীণফোনের দুই জন কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়। ওই সব সিমের সবই আগে থেকেই চালু অবস্থায় ছিল।

তারপর থেকেই এ ধরনের অযাচিত সিম ব্যবহার বন্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করে বিটিআরসি। ফলে গত ফেব্রুয়ারিতে কর্পোরেট সিম নিবন্ধের ক্ষেত্রে পাঁচটি নির্দেশনা জারি করা হয় যেখানে পূর্বানুমোদনের পরেই কর্পোরেট হাউজগুলোর কাছে সিম বিক্রির অনুমোদন দেওয়ার বিধান চালু করে।