তনুশ্রীর পর বিস্ফোরক আরও এক অভিনেত্রী

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮ | আপডেট: ১০:০৫:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮

টিবিটি বিনোদনঃতনুশ্রীকে যৌন হেনস্থা করেছেন নানা পাটেকর। ‘হর্ন ওকে প্লিস’-এর শুটিংয়ের সময় নানা তার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন। নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করে সম্প্রতি এভাবেই সরব হন বাঙালি অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে গোটা বলিউড জুড়ে। তনুশ্রী দত্তের পর এবার যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুললেন আরও এক অভিনেত্রী।

সংবাদ সংস্থা ডিএনএ-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী যৌন হেনস্থার অভিযোগ করেন পরিচালক প্রেমাংশু রায়-এর বিরুদ্ধে । তার অভিযোগ, ২০১৩ সালের ১৮ জুন ক্যারিয়ারের শুরুতে তিনি অডিশন দিতে গিয়েছিলেন প্রেমাংশু রায়ের সিনেমার জন্য।

২০ বছর বয়সে ‘গন্ধ’ নামের ঐ বাংলা সিনেমার অডিশন দিয়েই ওই সিনেমায় নিজের জায়গা করে নেন তিনি। অডিশনে তার বাছাই পর্বের পর রফি আহমেদ কিদওয়াই রোডের একটি ওয়ার্কশপে হাজির হতে হবে বলে পরিচালক তাকে জানান। ২০১৩ সালের ১৫ আগস্ট পর্যন্ত ওই ওয়ার্কশপ চলবে বলেও তাকে জানানো হয়।

ওয়ার্কশপ চলাকালীন রফি আহমেদ কিদওয়াই রোডেই তাকে যৌন হেনস্থা করা হয় বলে অভিযোগ করেন এই অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ওই ওয়ার্কশপেই তাকে দিয়ে একাধিক ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করানো হয় জোর করে। তার কথামত ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় না করলে, ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়া হবে বলেও ওই পরিচালক তাকে হুমকি দেন।

অভিনেত্রীর আরও অভিযোগ, সংশ্লিষ্ট সিনেমার একটি দৃশ্যের জন্য একটু আধটু খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয়ের কথা ছিল তার। কিন্তু, ওই অভিনেত্রীকে দিয়ে জোর করে একাধিক ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করানো হয়। এমনকী, সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে শুট করতেও ওই পরিচালক তাকে বাধ্য করেন বলে অভিযোগকারিনী দাবি করেন।

শুধু তাই নয়, ওই ওয়ার্কশপে কেউ যখন হাজির ছিলেন না, তখনই তাকে দিয়ে প্রেমাংশু রায় নগ্ন দৃশ্যে অভিনয় করান। ওই সালেই পুরুলিয়াতে নিয়ে গিয়েও অভিনেত্রীকে দিয়ে জোর জবরদস্তি করে অহেতুক দৃশ্যে প্রেমাংশু রায় অভিনয় করান বলে দাবি করেন অভিনেত্রী।

২০১৩ সালে ওই ঘটনা ঘটলে, ২০১৬-তে কেন পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই অভিনেত্রী? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ২০১৩ সালে ওই ঘটনার পর থেকে প্রেমাংশু রায় তাকে হুমকি দিতেন। যদি তিনি মুখ খোলেন, তাহলে তার ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়া হবে। পাশাপাশি তার বাড়ির লোককেও শেষ করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয়।

২০১৬ সালে প্রথমে পর্ণশ্রী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন এই অভিনেত্রী। অভিযোগ পাওয়ার পর পরই প্রেমাংশু রায়ের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪-র এ, ৫০৬ এবং ৫০৯ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপর পর্ণশ্রী থানা থেকে মামলাটি হস্তান্তর করা হয় পার্ক স্ট্রিট থানায়। এরপর তদন্তে ঢিলেমি করা হয় বলেও অভিযোগ করেন এই অভিনেত্রী। কিন্তু, প্রেমাংশু রায় বর্তমানে জামিনে রয়েছেন বলেও জানান তিনি।