তারা কেউ ছিলেন রাঁধুনি, কেউ ফল বিক্রেতা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:৫৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০ | আপডেট: ১:৫৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০২০

দিলীপ কুমার, অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান—কারো কাছে অভিনয়ের আইডল, আবার কারো কাছে জীবনের আদর্শ। তাদের বর্তমান যে অবস্থান, তা নিজ মেধা আর পরিশ্রমের মাধ্যমে অর্জন করেছেন।

বলিউডে অনেক জনপ্রিয় তারকা রয়েছেন, যারা সফল অভিনেতা হওয়ার আগে জীবিকার জন্য অন্য পেশা বেছে নিয়েছিলেন। তাদের কেউ ফল বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। আবার কেউ ছিলেন হোটেলের রাঁধুনি। বলিউডের এমন কজন তারকা নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদন।

দিলীপ কুমার
বলিউডের ‘ট্র্যাজেডি কিং’ দিলীপ কুমার। ১৯৪৪ সালে ‘জোয়ার ভাটা’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন তিনি। অভিনয় ক্যারিয়ারে ষাটের অধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র ‘দেবদাস’, ‘আজাদ’, ‘আন্দাজ’ প্রভৃতি।

কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন পদ্মভূষণ, দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার। কিন্তু অভিনয়ে নাম লেখানোর আগে কখনো ক্যান্টিন পরিচালনা করেছেন, আবার কখনো ফল বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেছেন দিলীপ কুমার।

অমিতাভ বচ্চন
বলিউডের শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চন। ১৯৬৯ সালে ‘সাত হিন্দুস্তানি’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন। আর অভিষেক চলচ্চিত্রের জন্য ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন অমিতাভ।

অভিনয় ক্যারিয়ারে প্রায় দুই শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন—পদ্মশ্রী, পদ্মভূষণ, পদ্মবিভূষণ প্রভৃতি সম্মাননা। অভিনয়ে নাম লেখানোর আগে অমিতাভ বচ্চন কলকাতায় একটি জাহাজের কোম্পানিতে চাকরি করতেন।

রজনীকান্ত
ভারতীয় চলচ্চিত্রাভিনেতা রজনীকান্ত। ১৯৭৫ সালে তামিল ভাষার ‘অপূর্ব রাগাঙ্গাল’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। এতে অল্প সময়ের একটি চরিত্রে কাজের সুযোগ পান তিনি। কিন্তু তাতে বাজিমাত করেন রজনীকান্ত। কারণ সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে এখন তিনি তামিল ভাষার সিনেমার সুপারস্টার।

অভিনয় ক্যারিয়ারে অসংখ্য ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি। কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন অসংখ্য সম্মাননা। কিন্তু এই অভিনেতা চলচ্চিত্রে পা রাখার আগে ভারতের বেঙ্গালুরুতে বাসের কন্ডাক্টার হিসেবে কাজ করতেন।

শাহরুখ খান
বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। আশির দশকের শেষের দিকে বেশ কিছু টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয়ের মাধ্যমে তার অভিনয় জীবন শুরু করেন। ১৯৯২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দিওয়ানা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বলিউডে তার অভিষেক হয়।

কর্মজীবনের শুরুতে ‘ডর’ (১৯৯৩), ‘বাজিগর’ (১৯৯৩), ও ‘আঞ্জাম’ চলচ্চিত্রে খল চরিত্রে অভিনয় করে পরিচিতি লাভ করেন। এরপর বাণিজ্যিকভাবে অসংখ্য সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করে খ্যাতি অর্জন করেন। প্রাপ্তির ঝুলিতেও জমা হয়েছে অনেক সম্মাননা। কিন্তু চলচ্চিত্রে পা রাখার আগে দিল্লিতে কনসার্টের অ্যাটেডেন্টের কাজ করতেন শাহরুখ।

অক্ষয় কুমার
বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার। রুপালি পর্দায় পা রাখার আগে তিনি রাজীব ভাটিয়া নামে পরিচিত ছিলেন। ১৯৯১ সালে ‘সৌগন্ধ’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন। অভিনয় ক্যারিয়ারে শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ বেশ কিছু পুরস্কার লাভ করেছেন। ‘খিলাড়ি’ খ্যাত এই অভিনেতা সিনেমায় নামার আগে ব্যাংককের হোটেলে রাঁধুনির কাজ করতেন।

রণবীর সিং
বলিউডের বর্তমান সময়ের ব্যস্ততম অভিনেতা রণবীর সিং। বলিউডের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে সংসার বেঁধেছেন তিনি। অভিনয় ক্যারিয়ারে মাত্র এক দশক পার করছেন রণবীর। কিন্তু এরই মধ্যে দারুণ খ্যাতি ও দর্শকের ভালোবাসা কুড়িয়েছেন এই অভিনেতা। অভিনয়ে পা রাখার আগে রণবীর সিং নামী একটি বিজ্ঞাপন সংস্থায় কপি রাইটার ছিলেন।