ত্যাগের মহিমায় মধ্যপ্রাচ্যে উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আযহা

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০১৯ | আপডেট: ১১:৩০:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০১৯

যথাযোগ্য ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্য এবং ইউরোপ আমেরিকার পাশাপাশি এশিয়া-আফ্রিকাসহ বিশ্বের অধিকাংশ দেশেপবিত্র ঈদুল আযহা পালিত হচ্ছে আজ রোববার। ওইসব দেশের মুসলমানদের সাথে প্রবাসী বাংলাদেশীরাও ঈদ আনন্দে মেতেছেন। দল বেঁধে ঈদের নামাজ আদায়, পরিচিত ও স্বজনদের সাথে কোলাকুলি এবং সামর্থবানরা পশু কোরবানী করছেন।

রোববার স্থানীয় সময় ভোর থেকে দেশগুলোতে ঈদের জামাতে সমাবেত হন লাখো মানুষ। নামাজ আদায়ের পর মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহ ও বিশ্বের শান্তি কামনা করা হয়।

সৌদির পবিত্র শহর মক্কা, মদিনাসহ বিভিন্ন অঞ্চলের মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধনী-গরিব সব শ্রেণির মানুষ এক কাতারে ঈদ নামাজ আদায় শেষে নিয়ম মেনে শুরু হয় পশু কোরবানি।

গালফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবি, দুবাই, শারজাহর বিভিন্ন মসজিদে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোর থেকে বাহারি পোশক পরে এসব জামাতে অংশ নেন হাজার হাজার মানুষ।

সূর্য ওঠার আগেই দেশগুলোর বিশাল ঈদগাহ ময়দান কানায় কানায় পরিপূর্ণ হওয়ায় মুসল্লিরা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে নামাজ আদায় করেন।

সাধারণত ফজরের নামাজের পর থেকে সকল মসজিদে আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, ওয়া লিল্লাহিল হামদ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে আমিরাতের প্রতিটি মসজিদ।

আবুধাবিতে ৬টা ১২ মিনিটে, আল আইনে ৬টা ৬ মিনিটে, শারজায় ৬টা ৬ মিনিটে, আজমানে ৬টা ৬ মিনিটে, ফুজাইরায় ৬টা ৪ মিনিটে, উম্মে আল কুইনে ৬টা ৬ মিনিটে ও রাস আল খাইমায় ৬টা ৪ মিনিটে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে মুসলমানদের বড় ধরনের এ উৎসব ঘিরে মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিটি দেশেই নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। দেশগুলোর নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো থেকে জানা গেছে।