দাউদকে ধরতে যুক্তরাষ্ট্র-ভারত চুক্তি

প্রকাশিত: ১:১৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮ | আপডেট: ১:১৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮

১৯৯৩ সালে ভারতের মুম্বাই শহরে ভয়াবহ হামলার মূল হোতা দাউদ ইব্রাহিমকে ধরতে এবার যুক্তরাষ্ট্রের সাথে চুক্তি করল ভারত। এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম বর্তমান।

ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়, শুক্রবার আমেরিকা ও ভারতের মধ্যে টু প্লাস টু স্ট্র্যাটেজিক বৈঠকে বেশ কিছু সামরিক সহযোগিতার চুক্তি হয়েছে, তার মধ্যেই অন্যতম বিষয় ছিল দাউদ ইব্রাহিম। ওই প্রতিবেদনে আরও জানা যায়, দাউদ ইব্রাহিমকে খুঁজে বের করতে ভারতের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পুরোদস্তুর সাহায্য করতে আমেরিকা রাজি হয়েছে। আমেরিকা আগেই দাউদকে বিশ্ব সন্ত্রাসবাদী হিসেবে ঘোষণা করেছে। ২ কোটি ডলারের পুরস্কার ঘোষণা করা রয়েছে দাউদের নামে।

এদিকে দাউদকে আশ্রয় দেয়ার ব্যাপারে প্রথম থেকেই পাকিস্তানকে দোষ দিয়ে আসছিল ভারত। আর পাকিস্তানের সাথে মার্কিন সম্পর্ক নিয়েও অভিযোগ ছিল তাদের। তবে শুক্রবারের গতকাল যৌথ বিবৃতিতে কঠোর ভাষায় পাকিস্তানকে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

জানা গেছে, আমেরিকার ওই প্রতিশ্রুতি পাওয়ার পর ভারতের গোয়েন্দা বাহিনী দাউদের পাকিস্তানের করাচিতে থাকার যতরকম প্রমাণ ও নথিপত্র রয়েছে, সেগুলি নিয়ে একটি পরিপূর্ণ রিপোর্ট তৈরি করছে। সেই রিপোর্ট নিয়ে আমেরিকায় যাবেন ভারতীয় গোয়েন্দাদের একটি উচ্চপর্যায়ের টিম।

আমেরিকার সঙ্গে ভারতের এই টু প্লাস টু বৈঠকের পর হওয়া চুক্তিতে একঝাঁক কৌশলগত অংশিদারিত্বের মধ্যে দাউদ ইব্রাহিম সংক্রান্ত প্রতিশ্রুতি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ২৩৯৬ প্রস্তাব অনুযায়ী গ্লোবাল টেররিস্টের বিরুদ্ধে যে কোনও দেশ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে। যদিও এই চুক্তির বিষয়বস্তু নিয়ে ভারত সরকার এখনও কোন আনুষ্ঠানিক মন্তব্য করেনি। তবে যদি সত্যিই আগামী কয়েকমাসের মধ্যে তৎপরতা শুরু হয়, তাহলে স্পষ্ট হবে আগামী লোকসভা ভোটের আগে মোদি সরকারের অন্যতম ‘ট্রাম্প’কার্ড হতে চলেছে অপারেশন দাউদ!