দারুল উলুম দেওবন্দের নয়া ফতোয়া জারি

প্রকাশিত: ৪:৫৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৫৭:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৮

ইসলামের জন্য নিবেদিত প্রাণ বিশ্বখ্যাত দ্বীনী প্রতিষ্ঠান ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ মুসলিম মহিলাদের জন্য এক নয়া ফতোয়া জারি করেছেন। ফতোয়াতে বলা হয়, মুসলিম মহিলাদের হাতে নেল পলিস লাগানো ইসলামবিরোধী; এর পরিবর্তে মেহেদী ব্যবহার করা উচিত।

এর আগে মুসলিম মহিলাদের জন্য দারুল উলুম বেশ কিছু ফতোয়া জারি করেছিলেন। মুসলিম মহিলাদের আইব্রো(ভ্রূ সুন্দর করে তোলা) করার বিরুদ্ধেও ফতোয়া জারি করেছিলেন। আইব্রো করা বা চুল কাটা ইসলাম বিরোধী।

এছাড়া এর আগে ফতোয়াতে বলা হয়, বাজারে গিয়ে বা দোকানে গিয়ে রক্তের সম্পর্ক না থাকা অপরিচিত পুরুষের থেকে(বিক্রেতাও হতে পারে) চুড়ি পরাও অপরাধ।

জানা যায়, ইসলামি শরীয়ত অনুযায়ী, যে সব পুরুষের সঙ্গে রক্তের সম্পর্ক নেই, সেইসব পুরুষের থেকে পর্দার আড়ালে থাকতে বলা হয়েছে মুসলিম মহিলাদের। আর তারই ভিত্তিতে ফতোয়া জারি করেন দারুল উলুম দেওবন্দ।

শুধু ভারতে নয়, সমগ্র বিশ্বে, ইসলামিক ইতিহাসে দারুল উলুম দেওবন্দের একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান রয়েছে। যারা এই সংগঠনের মতাদর্শে বিশ্বাসী তারা দেওবন্দি হিসেবে পরিচিত।