দুদকের মামলায় চাকরি হারালেন শিক্ষা কর্মকর্তা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯ | আপডেট: ১১:৩২:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০১৯
সংগৃহীত

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর ফিরোজকে বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে চৌহালী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সানোয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, দুর্নীতির একটি মামলার কারণে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জাহাঙ্গীর ফিরোজকে বরখাস্ত করা হয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম-আল হোসেন স্বাক্ষরিত পত্রটি ইউএনও গত সোমবার হাতে পেয়েছেন বলে জানান। জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর চৌহালী উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়ের সহকারী আবদুল মালেককে ১০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণের সময় দুদক তাঁকে হাতেনাতে আটক করে।

এ ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশনের পাবনার সহকারী পরিচালক শেখ গোলাম মওলা বাদী হয়ে চৌহালী থানায় তাঁর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার দীর্ঘ তদন্তের পর ঘুষ-দুর্নীতির সঙ্গে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর ফিরোজের সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া যায়।

পরে দুদক উপজেলা শিক্ষা কার্যালয়ের অফিস সহকারী আবদুল মালেককে এক নম্বর ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর ফিরোজকে দুই নম্বর আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। গত বছরের ২৪ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালত অভিযোগপত্র (চার্জশিট) গ্রহণ করেন।