‘দেশি মুরগির স্বাদ’ নিয়ে আসছে নতুন জাত

প্রকাশিত: ৯:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০ | আপডেট: ৯:৪৯:অপরাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০

বাংলাদেশ প্রাণি সম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএলআরআই) নতুন একটি জাতের মুরগি উদ্ভাবন করেছে, যার মাংসের স্বাদ দেশি মুরগির মতো বলে দাবি করা হয়েছে।

শনিবার প্রতিষ্ঠানটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই মুরগি দেখতে অবিকল দেশি মুরগির মতো। রোগবালাই কম হয় বলে এই জাতের মুরগি পালনে ওষুধের ব্যবহার অনেক কম।

“এর মাংস অনেক বেশি সুস্বাদু ও নিরাপদ।”

‘স্বল্প সময়ের মধ্যে’ এই জাতের মুরগি বাজারজাত করার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ প্রাণি সম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট।

ইতোমধ্যে আফতাব হ্যাচারি লিমিটেডের সঙ্গে এ সংক্রান্ত একটি চুক্তিও হয়েছে।

বিএলআরআই-এর মহাপরিচালক নাথু রাম সরকার বলেন, দেশি মুরগির স্বাদের আশায় মানুষ সোনালী মুরগির দিকে ঝুঁকেছে, কিন্তু সেই স্বাদ পায়নি। তাই আমাদের চেষ্টা ছিল হারারো দেশি মুরগির স্বাদ ফিরিয়ে আনা। আশাকরি, মানুষ এবার চাইলেই দেশি মুরগি খেতে পারবে।

এরা দেখতেও অবিকল দেশি মুরগির মতো। মাংস হবে খুব নিরাপদ, কারণ রোগবালাই সহিষ্ণু এই মুরগি লালন-পালনে বাড়তি কোনো মেডিসিনের দরকার হয় না। দেশি মুরগি সাধারণত বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন হয় না, তবে নতুন জাতের এই মুরগির বাণিজ্যিক উৎপাদন খুব ভালোভাবেই সম্ভব।

আপাতত নতুন উদ্ভাবিত এই মুরগির নাম দেওয়া হয়েছে ‘বিএলআরআই মাল্টি কালার টেবিল চিকেন’। শিগগিরই এর একটি যুতসই ব্র্যান্ডনেম দেওয়া হবে। দেশি মুরগির তুলনায় মাংসের পরিমানও হবে বেশি। আফতাব হ্যাচারির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, সময়ের ব্যবধানে সোনালী মুরগির রোগবালাই বেড়ে গেছে। ক্রেতারাও অনেকখানি মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। তবে এবার নতুন এই জাত সাড়া ফেলবে দেশজুড়ে, এমনটাই আমাদের প্রত্যাশা।