দেশে বর্তমানে ২ কোটিরও বেশি মানুষ কিডনি রোগে আক্রান্ত

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৪২:পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯
সংগৃহীত

দেশে বর্তমানে ২ কোটিরও বেশি মানুষ কিডনি রোগে আক্রান্ত। যাদের মধ্যে কিডনি বিকল হয়েছে, এমন রোগীর সংখ্যা প্রায় ৮ লাখ। অনেকেরই নেই ডায়ালাইসিস করানোর সক্ষমতা। কিডনি ফাউন্ডেশনের পরিসংখ্যানে মিলেছে এসব তথ্য। কিডনি চিকিৎসায় খরচ কমিয়ে আনার পরামর্শ অসহায় রোগী ও বিশেষজ্ঞদের।

মালতী দাস। কিডনী বিকল হয়েছে ২ বছর হলো। ধরা পড়ার পরেই চিকিৎসকরা জানিয়েছেন সপ্তাহে তিনদিন ডায়ালাইসিস না করলে জীবন ঘড়ি বন্ধ হয়ে যাবে তার। ডায়ালাইসিসের খরচ মেটাতে গিয়ে একবেলা না খেয়েই কাটে মালতীর।

দেশে দরিদ্র ও মধ্যবিত্তদের মধ্যে এমন অনেক রোগী আছেন, যাদের নিয়মিত ডায়ালাইসিস প্রয়োজন। আর এ চিকিৎসা বেচে থাকার প্রয়োজনে দীর্ঘদিন চালিয়ে যেতে হয়। অথচ এর ব্যায় অনেক বেশি। যা দেশের সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে।

কিডনী নষ্ট হওয়ার উপসর্গ সাধারণত ৭০ থেকে ৮০ ভাগ কিডনীর কর্মক্ষমতা নষ্ট হওয়ার আগে বোঝা যায়না। তবে একটু সচেতন হলেই এ রোগ অনেকটা প্রতিরোধ করা যায় বলে জানিয়েছেন কিডনী রোগ বিশেষজ্ঞ।

অসহায় কিডনী রোগীদের জন্য গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল মাত্র ৯০০ টাকায় রোগীদের ডায়ালাইসিস করছে। প্রতিদিন তিন পর্বে ২৩০ থেকে ২৪০ জন রোগী এখানে ডায়ালাইসিস করাতে পারে।

গণস্বাস্থ্যের ডায়ালাইসিস সেন্টারে রোগীর অর্থনৈতিক সক্ষমতার ভিত্তিতে মোট ছয়টি ভাগে সেবা দেয়া হয়। অতি দরিদ্রদের জন্য রয়েছে বিনামূল্যে ডায়লাইসিসের ব্যবস্থা।