দেড় মাসে রামমন্দিরের তহবিলে ২১০০ কোটি রুপি

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৫৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ২, ২০২১ | আপডেট: ৫:৫৫:অপরাহ্ণ, মার্চ ২, ২০২১

ভারতের অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের জন্য মাত্র দেড় মাসেই দুই হাজার ১০০ কোটি রুপির তহবিল সংগ্রহ হয়েছে।

সোমবার পর্যন্ত এ অর্থ জমা হয়েছে বলে তহবিল সংগ্রহের কাজে জড়িত বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

গত ১৫ জানুয়ারি রামমন্দির নির্মাণের জন্য পাঁচ লাখ ১০০ টাকা অনুদান দেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এর পর নানা জায়গা থেকে রামমন্দির নির্মাণের টাকা এসেছে। টাকা দিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, দিল্লির এমপি গৌতম গম্ভীরসহ অনেকেই।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পশ্চিমবঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে সম্প্রতি জানানো হয়, পশ্চিমবঙ্গে অর্থসংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছিল ৫০ কোটি। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সেই লক্ষ্য পূরণ করেছে পরিষদ। তখনই দেশ জুড়ে সংগৃহীত অর্থের পরিমাণ দেড় হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছিল। ১ মার্চ সেই সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১০০ কোটি টাকায়।

মূলত বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নেতৃত্বে গত বছর মকর সংক্রান্তির সময় এই অর্থ সংগ্রহের কাজ শুরু হয়। দীর্ঘ সময় ধরে চলা এই কাজকে এক অসাধারণ অভিজ্ঞতা বলে বর্ণনা করেছে পরিষদ।

সংগঠনের কার্যনির্বাহী সভাপতি অলোক কুমার বলেছেন, ‘সারা দেশে ১০ লাখ দল তৈরি করে ও ৪০ লাখ কর্মী নিয়ে পৃথিবীর এই বৃহত্তম প্রচার ও অর্থ সংগ্রহ অভিযান চালিয়েছেন তারা। এসময় তারা দেশের বিভিন্ন শহর, গ্রামে মানুষের দরজায় দরজায় গেছেন তারা। আর যেভাবে সাধারণ মানুষ রামের প্রতি তাদের ভক্তি প্রদর্শন করেছেন, তা অবাক করেছে সকলকে।’

যখন এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছিল, তখন কথা ছিল মোট ১ হাজার ১০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করা হবে। কিন্তু সাধারণ মানুষের বিপুল অংশগ্রহণের ফলে সংগৃহীত অর্থের পরিমাণ ২ হাজার ১০০ কোটি টাকায় পৌঁছে গেছে।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘দেশের প্রথম শ্রেণীর নাগরিক থেকে শুরু করে একেবারে পথের দরিদ্র মানুষটিও রাম মন্দির তৈরির কাজে নিজের সামান্য সঞ্চয় থেকে অর্থ সাহায্য করেছেন।’