দ্বিগুণ ভাড়া নেয়ায় শ্যামলী পরিবহনকে জরিমানা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:৪২ অপরাহ্ণ, জুন ২, ২০২০ | আপডেট: ৬:৪২:অপরাহ্ণ, জুন ২, ২০২০

নওগাঁ থেকে ঢাকার বর্ধিত ভাড়া ৬৪০ টাকা। সেখানে আদায় করা হয়েছে ৮০০ টাকা। সরকারের বেঁধে দেয়া ৬০ ভাগ ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে অমান্য করে যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করায় বগুড়ায় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসের সুপারভাইজারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বগুড়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিএম রাশেদুল ইসলাম মঙ্গলবার দুপুরে এ জরিমানা করেন।

বগুড়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিএম রাশেদুল ইসলাম জানান, দূরপাল্লার বাসগুলোতে সরকারের বেঁধে দেয়া ভাড়া আদায় করা হচ্ছে কিনা সেটি পর্যবেক্ষণের জন্য শহরের ছিলিমপুর এলাকায় প্রথম বাইপাস সড়কে আদালত বসানো হয়।

তিনি বলেন, নওগাঁ থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসকে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে থামানো হয়। এরপর বাসটির ভেতরে বসা যাত্রীদের কাছ থেকে টিকিট নিয়ে দেখা যায় তাদের কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত এমনকি শতভাগ বেশি টাকা নেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নওগাঁ থেকে ঢাকার ভাড়া আগে ছিল ৪০০ টাকা। ৬০ শতাংশ ভাড়া বেশি ধরে এখন ৬৪০ টাকা নেয়ার কথা। কিন্তু একজন যাত্রীর টিকিটে দেখা গেছে তার কাছ থেকে ৮০০ টাকা ভাড়া নেয়া হয়েছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিএম রাশেদুল ইসলাম জানান, সরকারের বেঁধে দেয়া ভাড়ার অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগটি সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে প্রমাণিত হওয়ায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী শ্যামলী পরিবহনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে। এর ১৭ দিন পর ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পাশাপাশি গণপরিবহনও বন্ধ করে দেয়া হয়। দীর্ঘ ৬৭ দিন বন্ধ থাকার পর গত ১ জুন থেকে তা আবার চালু হয়। তবে সরকারের পক্ষ থেকে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ দেওয়া হয়। প্রতিটি বাসে নির্ধারিত আসনের ৫০ শতাংশ যাত্রী পরিবহন করতে বলা হয়। যাত্রী কমে যাওয়ায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের যাতে লোকসান গুনতে না হয় এজন্য যাত্রীদের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ানোর জন্য বিআরটিএর পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়।