‘ধর্মকে রাজনৈতিক যন্ত্র বানাবেন না’

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:৫৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০ | আপডেট: ৪:৫৮:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৪, ২০২০

‘লাভ জিহাদ’ ঠেকাতে কড়া আইন করার প্রস্তাব দিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) শাসিত কিছু রাজ্য সরকার। উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটক, আসাম সরকার বেশ সৌচ্চার বিষয়টি নিয়ে। এই যখন অবস্থা ঠিক তখনই বিজেপি নেতাদের একহাত নিলেন পশ্চিমবঙ্গের সংসদ সদস্য ও অভিনেত্রী নুসরাত জাহান।

গত শনিবার (২১ নভেম্বর) কলকাতায় জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিজেপি নেতাদের কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন নুসরাত।

নুসরাত জাহান বললেন, ‘‌প্রেম খুব ব্যক্তিগত। প্রেম এবং জেহাদ কখনও হাতে হাত ধরে চলতে পারে না। ঠিক ভোটের আগে মানুষ এ ধরনের ইস্যু তোলে।

এটা একটা ব্যক্তিগত পছন্দের বিষয় কে কার সঙ্গে থাকতে চান। প্রেমে পড়ে পরস্পরকে ভালোবাসুন। ধর্মকে রাজনৈতিক যন্ত্র বানাবেন না।’

মুসলিম ধর্মাবলম্বী নুসরাত জাহান নিজেই জৈন ধর্মাবলম্বী নিখিল জৈনকে বিয়ে করেছেন গতবছর। গত লোকসভা নির্বাচনে বসিরহাট কেন্দ্র থেকে জেতার পর যখন নুসরাত যখন সাংসদ পদে শপথ নিতে গিয়েছিলেন, তখন তিনি সিঁদুর পরে যাওয়ায় তাঁকে কট্টর ইসলামপন্থীদের তোপের মুখে পড়তে হয়েছিল।

সে সময় কড়া জবাব দিয়ে তিনি বলেছিলেন, তিনি নিজের ধর্ম খুব ভালো করেই জানেন। লাভ-জেহাদ নিয়ে সম্প্রতি কড়া পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিজেপিশাসিত রাজ্যগুলি। উত্তরপ্রদেশ সরকার, মধ্যপ্রদেশ সরকার, আইন আনার ঘোষণা করেছে লাভ–জেহাদ রুখতে। রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী গেহলট সম্প্রতি বলেন, লাভ–জেহাদ কথাটা আসলে বিজেপির আমদানি করা দেশে সাম্প্রদায়িক অস্থিরতা তৈরির জন্য।