নাতির বয়সীর সঙ্গে প্রেম, অবশেষে প্রেমিকের যৌনাঙ্গ কাটলো বৃদ্ধা

প্রকাশিত: ১২:১৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯ | আপডেট: ১২:১৯:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯

নাতির বয়সী এক তরুণের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন এক বৃদ্ধা। দুজনের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও তৈরি হয়েছিলো। কিন্তু তার প্রেমিক আরো এক নারীর সঙ্গে সম্পর্ক করেন এবং তাকে বিয়ে করার আয়োজন করেন। খবর পেয়ে রেগে গিয়ে ওই তরুণের যৌনাঙ্গ কেটে দিয়েছেন তারই অসম বয়সী প্রেমিকা।

এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে কুষ্টিয়া জেলার আলমডাঙা উপজেলায়।

জানা যায়, উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধা। একাই থাকত সে। নিঃসঙ্গ জীবন কাটাতে কাটাতে হাঁফিয়ে উঠেছিল। এলাকারই নাতির বয়সি এক যুবকের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে ওঠে বৃদ্ধার। ধীরে ধীরে ঘনিষ্ঠ হতে থাকে দু’জনে। এক পর্যায়ে তারা শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন।

এভাবে আনন্দেই দিন কাটছিল বৃদ্ধার। একদিন হঠাৎ খবর পান নাতির বয়সি প্রেমিক অন্য এক যুবতীকে বিয়ে করতে চলেছে। প্রেমিকের প্রতারণায় ক্ষেপে যান ওই নারী। মনে জ্বলে উঠে প্রতিশোধের আগুন। এরপর তিনি ঘটনার দিন রাতে নাতির বয়সি প্রেমিককে বাড়িতে ডেকে পাঠান। খবর পেয়ে বৃদ্ধা প্রেমিকার বাড়িতে ছুটে আসেন যুবক। কিছুক্ষণ কথাবার্তা বলার পরই শোবার ঘরে চলে যায় দু’জনে। উদ্দাম যৌনতায় মেতে ওঠেন তারা। শারীরিক সম্পর্কের এক পর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে প্রেমিকের যৌনাঙ্গে কোপ দেয় বৃদ্ধা।

ভয়াবহ আঘাতে চিৎকার শুরু করেন ওই যুবক। তার আর্তনাদ শুনে বৃদ্ধার প্রতিবেশীরা দৌড়ে আসেন। তারা ওই যুবককে উদ্ধার করে আলমডাঙা শেফা ক্লিনিকে ভর্তি করান।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে আলমডাঙা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান মুন্সি বলেন, ‘বিষয়টি আমি শুনেছি। কেউ এ ব্যাপারে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।’