নাসিক কাউন্সিলর সেই খোরশেদের স্ত্রী’র অবস্থা আশঙ্কাজনক,আইসিইউতে ভর্তি!!

প্রকাশিত: ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০ | আপডেট: ১১:০৮:পূর্বাহ্ণ, মে ৩১, ২০২০

নারায়ণগঞ্জে করোনা মহামারিতে জীবনবাজি রেখে একের পর এক করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ দাফনকারী খোরশেদ , তিনি নিজে এবং স্ত্রী’সহ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যিনি ৬১ লাশ দাফন করে অসহায় মানুষের সংকট কাটানোর চেষ্টা করেছেন জীবন বাজি রেখে।। দেশে-বিদেশে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে তারই নাম। নারায়ণগঞ্জের সেই মানবতার মূর্তপ্রতিক নাসিক কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের স্ত্রী’র জীবন করোনায় আশঙ্কাজনক। তিনি নিজেও আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন মরনব্যাধি করোনা ভাইরাসে । এখন পুরো পরিবার নিয়েই সংকটে পড়ে গেছেন কাউন্সিলর খোরশেদ।

শনিবার(৩০শে মে) রাতে জানান, শ্বাসকষ্টো জনিত কারণে অক্সিজেন লাগানো রয়েছে তার স্ত্রী লুনার। আমি এখন কাঁচপুর সাজেদা হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছি। আইসিইউ পেতে হয়ত সকাল হয়ে যাবে। বাঁচা মরা তো আল্লাহর হাতে।

তিনি আরও জানান , করোনায় আক্রান্ত হয়ে স্ত্রী আফরোজা খন্দকার লুনার শ্বাসকষ্ট বাড়ার পাশাপাশি পুরো শরীর নিস্তেজ হয়ে গেছে। বিশেষ করে আমার( খোরশেদ) করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরে আরও ভেঙ্গে পড়েছে লুনা । শনিবার বিকালে লুনার অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউ ব্যবস্থা করতে মাথার ঘাম পায়ে ফেলেছি। নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকায় কোথাও কোনও আইসিইউ’র ব্যবস্থা করতে পারিনি । আমার স্ত্রীর অবস্থা ক্রমশ খারাপের দিকেই যাচ্ছে । কোথাও কোন আইসিইউ খালি পাচ্ছি না। নারায়ণগঞ্জ কাচপুরস্থ সাজেদা হাসপাতালে শুদু চারটি আইসিইউ বেড রয়েছে। সেগুলোও পরিপূর্ণ রয়েছে, আর কোথাও নেই।চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

শনিবার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের। এর আগে তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাড়িতেই আইসোলেশনে ছিলেন।

কাউন্সিলর খোরশেদ বলেন, আমার নিজের রিপোর্ট পেয়েছি রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এসেছে।ডাক্তারী পরামর্শ মতে চিকিৎসা নিচ্ছি। তিনি বলেন আমি করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে এই পর্যন্ত(শুক্রবার) ৬১টি করোনায় মৃত লাশ দাফন করেছি। এখন নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে চলে গেছি। আমি নিজেই চিকিৎসা নেব বাড়িতে থেকে।

তিনি আরও জানান, আমি আক্রান্ত হলেও আমার সকল কার্যক্রম চলবে। আমার টিম সক্রিয় থাকবে মানবতার সেবায়, আমার ফোন সর্বক্ষন চালু থাকবে। আমি যতদিন বেঁচে আছি এক বিন্দুও সরে যাব না, সর্বদা সচেস্ট থাকবো মানবতায় ।