নায়িকার জন্য ট্র্যাফিক পুলিশের আফসোস

প্রকাশিত: ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮ | আপডেট: ১১:৫২:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮

বাংলা চলচ্চিত্র অঙ্গনের তুমুল সাড়া জাগানো নায়িকা অঞ্জু ঘোষ। দীর্ঘ ২২ বছর পর গেল বুধবার তিনি ঢাকায় এসেছেন।

দীর্ঘ ২২ বছর পর চলচ্চিত্র অঙ্গনের মানুষ ও তার সহকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশেই অঞ্জুর এই ঢাকা সফর। এদিকে আজ রোববার ২২ বছর পর এফডিসিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে যাবার উদ্দেশে গাড়ি যোগে রওনা হন ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ ছবির নায়িকা।

কিন্তু অঞ্জু ঘোষের গাড়িটি মালিবাগ মোড়ে ট্র্যাফিক পুলিশ আটকে দেয়। গাড়ির কাগজপত্র যাচাইয়ের জন্যই মূলত তার গাড়িটি আটকানো হয়। একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, এ সময় ট্র্যাফিক পুলিশ মোটর সাইকেল ও অন্যান্য গাড়ির লাইসেন্স যাচাই নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন।

এমন অবস্থায় গাড়িটি খানিকটা সময় আটকে রাখা হলে তার সঙ্গে থাকা একজন নির্মাতা ওই পুলিশকে গাড়িতে নায়িকা অঞ্জু ঘোষের থাকার কথা এবং দ্রুত গাড়িটি ছেড়ে দেয়ার কোথা জানান।

কিন্তু ভিড়ের মধ্যে ওই পুলিশ কর্মকর্তা বিষয়টি গুরুত্ব দেননি। যখন গাড়িটি ছেড়ে দেয়া হয় তখন তিনি আরেক পুলিশের কাছে জানতে চান আসলে কী ঘটেছিল।

তখন তিনি জানান, গাড়িতে নায়িকা অঞ্জু ঘোষ ছিলেন। তিনি এফডিসিতে যাচ্ছিলেন কোনও একটা অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য।

বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই পুলিশ কর্মকর্তা বেশ আফসোস করেন। তিনি বলেন, ইশ, এক নজর তাকে দেখতে পারলে ভালো লাগতো।

এদিকে বেলা ৩টা ১৫ মিনিটে অঞ্জু ঘোষ এফডিসিতে পৌঁছেছেন। বিকেলে সেখানেই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলবেন তিনি।

১৯৯৬ সালে অর্থাৎ দীর্ঘ ২২ বছর আগে দেশ ছাড়েন অঞ্জু। তখন থেকেই কলকাতায় বসবাস করছেন এই নায়িকা। কলকাতায় বেশ কিছু চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, অঞ্জুর প্রকৃত নাম অঞ্জলি। ১৯৭২ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রামের মঞ্চনাটকে জনপ্রিয়তার সঙ্গে অভিনয় করেন। ১৯৮২ সালে ফোক-ফ্যান্টাসি চলচ্চিত্র নির্মাতা এফ কবির চৌধুরী চলচ্চিত্রে আনেন তাকে। অঞ্জুকে নিয়ে তৈরি করেন ‘সওদাগর’ ছবিটি।

এরপর ১৯৮৯ সালে ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ তাকে এনে দেয় রাতারাতি জনপ্রিয়তা। ঢালিউডে প্রায় ৫০টি ছবির অভিনেত্রী তিনি।