নিখোঁজের ৪ দিন পর মিলল স্কুলশিক্ষিকার অর্ধগলিত মরদেহ

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৪২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ৯:৪২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮
শরীয়তপুর

নিখোঁজ হওয়ার ৪ দিন পর জাজিরাতে এক স্কুলশিক্ষিকা অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় নিজ বাড়ির পেছনের বাঁশঝাড়ের মধ্য থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। জাজিরা থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

প্রাথমিকভাবে মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত কোনও মামলা হয়নি।

জাজিরা থানা ও বড়মুলনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খান আব্দুর রহিম সূত্রে জানা গেছে, রুবিনা আক্তার রুমা জাজিরা উপজেলার ২০ নম্বর বড়মুলনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা ছিলেন। তিনি একই উপজেলার মুলনা ইউনিয়নের রায়ের কান্দি গ্রামের মৃত হাসান মুন্সীর মেয়ে। তিনি গত শুক্রবার নিজ বাড়িতে আসরের নামাজ শেষে ব্যক্তিগত কাজে উপজেলা সদরে যান।

সন্ধ্যা পেরিয়ে গেলেও তিনি বাড়ি ফিরে না আসায় তার মা মোবাইলফোনে তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। এর পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনও সন্ধান পাওয়া যায়নি।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর রুবিনার ভাই শামসুল হক মুন্সি জাজিরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর মঙ্গলবার বিকেলে বাড়ির পেছনের বাঁশের ঝাড়ের মধ্যে থেকে মরদেহ থেকে দুর্গন্ধ ছড়ালে স্থানীয় লোকজন জাজিরা থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক খান আব্দুর রহিম বলেন, রুবিনা ব্যক্তিগতভাবে ধার্মিক ও খুবই ভালো চরিত্রের অধিকারী ছিলেন। তিনি ২০১০ সাল থেকে নিষ্ঠার সঙ্গে বিদ্যালয়ের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তার এ অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যুতে আমরা শোকাহত।

জাজিরা থানার ওসি মো. বেলায়েত হোসেন বলেন, খবর পেয়ে জাজিরা থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। লাশের গায়ে পোকা ধরায় তাৎক্ষনিকভাবে পুলিশ মৃত্যুর কারণ উদঘাটন করতে পারি নাই। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় এখনো কোনও মামলা হয়নি।