নিজের অস্ত্রোপচারে মেয়ে না বাঁচায় যা করলেন চিকিৎসক

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:০৩:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২০

ভারতের কেরালা রাজ্যের কোল্লাম জেলায় অস্ত্রোপচারের সময় মেয়ের মৃত্যু হওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন এক চিকিৎসক বাবা। জানা গেছে, ওই চিকিৎসকের নেতৃত্বেই তার মেয়ের অস্ত্রোপচার হয়েছিল। অভিযোগ উঠেছে, মেয়ের মৃত্যুর পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাকে নিয়ে তীব্র সমালোচনা এবং কটূক্তি করা হয়। এরপরই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, হতভাগা ওই চিকিৎসকের নাম অনুপ কৃষ্ণ। তিনি যখন ছোট্ট মেয়েটির হাঁটুর অস্ত্রোপচার করছিলেন, তখনই কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে শিশুটির মৃত্যু হয়।

পরে মেয়েটিকে অন্য একটি হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, বাবার অস্ত্রোপচারের সময়ই তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনা জানাজানি হলে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েন মেয়েটির বাবা অনুপ কৃষ্ণ।

এমনকি নিজের পরিবার ও স্থানীয়রা মেয়ের মৃত্যুর জন্য তার বাবা অনুপকেই দায়ী করেন। এ ঘটনায় বিক্ষোভ হয় ওই হাসপাতালের বাইরেও। চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে স্থানীয় কোল্লাম থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়।

এমতাস্থায় নিজের অস্ত্রোপচারে মেয়ে হারানোর কারণে ভেঙে পড়া অনুপ পরবর্তী ঘটনাপ্রবাহের চাপে আরো মুষড়ে পড়েন। শেষমেস বেছে নেন আত্মহননের পথ। বাড়ির বাথরুমের দেয়ালে ‘সরি’ লিখে আত্মহত্যা করেন তিনি।

এশিয়া নিউজ জানায়, কোল্লাম জেলার কাদাপ্পাকাড়াতে নিজ বাড়িতেই আত্মহত্যা করা চিকিৎসক অনুপের মরদেহ গত বৃহস্পতিবার উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়েছে কি না, তা এখনো জানা যায়নি।