নির্যাতনের প্রতিবাদ জানাতে যশোরে থানা ঘেরাও করলো হনুমানরা

প্রকাশিত: ৯:৪৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৪৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
ছবি: সংগৃহীত

যশোরে কেশবপুরে আজ ঘটে গেল এক বিরল ঘটনা। কালোমুখো একটি হনুমানের আহত হওয়ার ঘটনায় বিচার চাইতে এসে থানা ঘেরাও করলো একদল হনুমান।

আজ রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কেশবপুর থানার প্রধান ফটকে অবস্থান নেয় হনুমান দল। এক পর্যায়ে এরা ডিউটি অফিসারের কক্ষে ঢুকে পড়ে।

থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহিন সাংবাদিকদের জানান, একটি মা হনুমান কোলে বাচ্চা নিয়ে প্রথমে থানায় আসে। বাচ্ছাটিকে মারপিট করে কে বা কারা আহত করেছে। তিনি বাচ্চাটির অবস্থা দেখে অনুধাবন করেন। এর পরপরই প্রায় ২০ থেকে ২৫টি হনুমান দলবদ্ধভাবে থানার প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নেয়। পরে এরা ডিউটি অফিসারের কক্ষে অবস্থান যায়।

থানার অফিসার ইনচার্জ হনুমানদের বুঝাতে সক্ষম হন যে হামলাকারীদের বিষয়ে তিনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। এরপর কিছু শুকনো খাবার দিলে ঘন্টাখানেক অবস্থানের পর তারা চলে যায়।

কেশবপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা আব্দুল মোনায়েম হোসেন জানান, শহর ও শহরতলীতে প্রায় ৫ শতাধিক হনুমান রয়েছে। তাদের জন্য প্রতিদিন মাত্র ৩৫ কেজি কলা , ২ কেজি বাদাম ও ২ কেজি পাউরুটি দেয়া হয়। যা প্রয়োজনের তুলনায় একেবারে অপ্রতুল।

তাছাড়া হনুমান অত্যন্ত স্পর্শকাতর প্রাণী। তাদের উপর কেউ হামলা করলে তারা দলব্ধভাবে এভাবে থানায় যায়। ইতোপূর্বে এরকম একাধিক ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে হনুমানের অপ্রতুল খাদ্য সরবরাহের কারণে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে এরা ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে তারা সাধারণ মানুষের কাছে দৈহিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। যার ধারা বাহিকতায় তারা থানা পুলিশ স্টেশনের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। থানার প্রধান কর্তার আশ্বাস দিলে তারা আবার থানা চত্বর ছেড়ে চলে যায়।