পদ্মা সেতুতে বসল ২১তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৩১৫০ মিটার

প্রকাশিত: ৭:৪৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২০ | আপডেট: ৭:৪৮:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২০

দুই সপ্তাহ বিরতি দিয়ে পদ্মা সেতুতে আবারও যোগ হলো নতুন স্প্যান। জাজিরা প্রান্তে ৩২ ও ৩৩ নম্বর পিলারের ওপর বসানো ২১তম এ স্প্যানের মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হলো ৩ হাজার ১৫০ মিটার সেতু। নতুন কোনো সমস্যা তৈরি না হলে নির্ধারিত সময়ের আগেই সেতুর কাজ শেষ করা সম্ভব বলে মনে করছেন প্রকল্প পরিচালক।

ঘন কুয়াশা। ২ হাত দূরের ছবিও দেখা যায় না। পৌষের এমন সকালে আবছা ছায়ার মতো বড় একটা কাঠামো এগিয়ে চলে পদ্মার বুকে। মাওয়ার ইয়ার্ড থেকে প্রায় সাড়ে ৪ কিলোমিটার দূরত্ব পার হয়ে গন্তব্য জাজিরা পাড়ের ৩২ ও ৩৩ নম্বর পিলার।

মাওয়া ও মাঝনদীর স্প্যানগুলো ইয়ার্ড থেকে কাছে হওয়ায় একদিনের মধ্যে বসানো গেলেও জাজিরা প্রান্তের আগের স্প্যানগুলো বসাতে সময় লেগেছে দুই দিন করে। তার সঙ্গে এবার কুয়াশার দাপট। তাই এ স্প্যানটির ক্ষেত্রেও বাড়তি একদিন সময় হাতে রাখা ছিলো। কিন্তু ২ ঘণ্টার ব্যবধানে নির্ধারিত পিলারের কাছে পৌঁছে যাওয়ায় শুরু হয় স্প্যান বসানোর কাজ।

৪ ঘন্টায় সম্ভব হয় স্প্যানটি পিলারের ওপর তোলা। কাজের গতিতে সন্তুষ্ট প্রকল্প কর্তৃপক্ষ বলছে, নতুন করে কোনো জটিলতা তৈরি না হলে দ্রুত এগুবে কাজ।

উপ-সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির বলেন, মঙ্গলবার বিকেল ৩টা ৩ মিনিটে ৬-বি স্প্যান বসানোর কাজ সম্পন্ন হয়। এর আগে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ১৫০ মিটার দীর্ঘ ও তিন হাজার ১৪০ টন ওজনের স্প্যানটি পিলারের কাছে নেয়া হয়। তিন হাজার ৬০০ টন ধারণক্ষমতার তিয়ান-ই ভাসমান ক্রেনে মুন্সিগঞ্জের মাওয়ার কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে বহন করে স্প্যানটি সেতুর কাছে নেয়া হয়। ২০তম স্প্যান বসানোর ১৪ দিন পর বসানো হয় ২১তম স্প্যান।

জানা যায়, পদ্মা সেতুর মোট ৪২টি পিলারের মধ্যে বর্তমানে কাজ সম্পন্ন হয়েছে ৩৫টির। সেতুতে দুই হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্ল্যাবের মধ্যে ৪১০টি রেল স্ল্যাব বসানো হয়েছে। দুই হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্ল্যাবের মধ্যে ১২৫টি স্ল্যাব বসানো শেষ হয়েছে। পদ্মা সেতুর মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে চীন থেকে মাওয়ায় এসেছে ৩৩টি। এর মধ্যে ২১টি স্প্যান বসানো হয়েছে।

ছয় দশমিক ১৫ মিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে। এ বছরের জুলাই নাগাদ ৪১টি স্প্যান বসানো শেষ হবে।