পদ্মা সেতুর নামে ইউপি চেয়ারম্যানের চাঁদাবাজি!

প্রকাশিত: ৮:৪৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯ | আপডেট: ৮:৪৮:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৫, ২০১৯

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় পদ্মা সেতুর দোহাই দিয়ে ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ‘চাঁদাবাজি’ করার অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম মোরশেদুল বারী। তিনি উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মঙ্গলবার (০৫ নভেম্বর) বিকেলে উপজেলার কুমিড়া পন্ডিতপুকুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। ওই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে এলাকায় মাইকিং ও লিফলেট বিতরণও করা হয়।

জানা গেছে, টাইগার বহুমুখি যুব সমবায় সমিতির আয়োজনে ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মরহুম জালাল উদ্দিন মন্ডল স্মৃতি স্মরণে উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের কুমিড়া পন্ডিতপুকুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ফুটবল টুর্ণামেন্টের আয়োজন করা হয়। ফুটবল টুর্নামেন্ট উপলক্ষে গত এক সপ্তাহ আগে থেকে এলাকায় চলছে মাইকিং ও পোস্টারিং।

ক্লাবের সভাপতি ও ভাটরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোরশেদুল বারী মোরশেদ গত মঙ্গলবার সকাল থেকে চেয়ারে বসে খেলা দেখার জন্য ৫০ টাকার টোকেন বিক্রি শুরু করেছেন তার লোকজন দিয়ে। আগত দর্শকদের জন্য ১ হাজার চেয়ারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। চেয়ারে বসে খেলা দেখা উপভোগ করতে ৫০ টাকার বিনিময়ে টোকেন কিনতে হচ্ছে। টোকেনে চেয়ার নাম্বার উল্লেখ ছাড়াও ক্লাবের সাহাযার্থে এবং পদ্মা সেতুর নাম উল্লেখ রয়েছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারী মোরশেদের বক্তব্য জানার জন্য একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এ প্রসঙ্গে নন্দীগ্রাম থানার ওসি মোহাম্মদ শওকত কবীর বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. শারমিন আখতার বলেন, এ ধরনের টোকেন বিক্রির কোন অনুমোদন দেয়া হয় নাই। আমাকে না জানিয়ে আয়োজকরা এটা করতে পারে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।