পশ্চিমবঙ্গকে ‘স্বাধীন রাষ্ট্র’ করার দাবিতে মমতাকে চিঠি

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:২৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১ | আপডেট: ৮:২৯:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত

এবার পশ্চিমবঙ্গকে স্বাধীন করার ঘোষণা করতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়েছে খালিস্তানপন্থীরা। দিল্লির কৃষক আন্দোলনে লালকেল্লায় সহিংসতার পর থেকে এর নেপথ্যে খলিস্তানিদের হাত থাকার অভিযোগ ওঠে। এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছে ভারতের থেকে স্বাধীনতার দাবি করে আসা খালিস্তানি সংগঠন ‘শিখস ফর জাস্টিস’ (এসএফজে)।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, পশ্চিমবঙ্গকে অবিলম্বে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে চিঠি পাঠিয়েছে শিখ বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনটি।

খলিস্তানিদের বক্তব্য, বাংলার সম্পদকে সব দিক দিয়ে ধ্বংস করছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। নিজেদের পরিচিতি, আদর্শ, সংস্কৃতিকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে পশ্চিমবঙ্গের উচিত ভারত থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন একটি রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করা।

চিঠিতে কীভাবে ভারত থেকে আলাদা হতে পারে পশ্চিমবঙ্গ? সেই পথও দেখিয়েছে খলিস্তানিরা। তাদের দাবি, ভারতীয় সংবিধানেই লুকিয়ে রয়েছে এর উত্তর।

খলিস্তানিদের যুক্তি, রাজ্যের আইনসভায় একতরফাভাবে আইন পাশ করে ভারতীয় ভূখণ্ড থেকে আলাদা হয়ে যেতে পারে বাংলা। এহেন পদক্ষেপ করলে বিষয়টি আন্তর্জাতিক মঞ্চে পৌঁছে যাবে। তখন ভারতকে চাপে ফেলে আন্তর্জাতিক আদালতে এই মামলা চালানো যাবে।

উল্লেখ্য, বিচ্ছিন্নতবাদে উসকানি দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি এমনই আরও একটি চিঠি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের কাছেও পাঠিয়েছে এসএফজে। শুধু তাই নয়, পৃথক রাষ্ট্র হলে দু’জনেই প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসতে পারবেন বলেও টোপ দিয়েছে খলিস্তানিরা। পাশাপাশি, ‘ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন’ থেকে বেরিয়ে যেতে দুই রাজ্যকে আইনি সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা।

সব মিলিয়ে, কৃষক আন্দোলনের আড়ালে এবার ভারতের অন্য রাজ্যগুলিতেও বিচ্ছিন্নতাবাদের বীজ বপন করার চেষ্টা চালাচ্ছে নিষিদ্ধ খলিস্তানি সংগঠন ‘শিখস ফর জাস্টিস’।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।