পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে পারের অপেক্ষায় ৭ শতাধিক যানবাহন

প্রকাশিত: ২:০৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২০ | আপডেট: ২:০৪:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২০

পদ্মার তীব্র স্রোতে মানিকগঞ্জ পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। গত সপ্তাহ থেকে এ নদীর পানি কমতে শুরু করলেও গত তিনদিন ধরে স্থিতিশীল রয়েছে। ফলে নদীর তীব্র স্রোত এখনো না কমায় ফেরিগুলোকে মূল চ্যানেল থেকে উজানের দিকে তিন কিলোমটিার ঘুরে নৌরুট পাড়ি দিতে হচ্ছে। এতে ফেরির প্রতি ট্রিপে ৩৫ থেকে ৪০ মিনিট সময় বেশি লাগছে।

এদিকে টানা দু’দিন সরকারি ছুটি হওয়ায় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ ও যাত্রীবাহী পরিবহনের বাড়তি চাপ পড়েছে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায়। ফলে পদ্মা নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে যাত্রীবাহী পরিবহন, পণ্যবোঝাই ট্রাকসহ ছোট-বড় সাত শতাধিক যানবাহন।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে পাটুরিয়া ঘাটে বাড়তি যানবাহনের চাপের এমন চিত্র দেখা যায়। সকাল থেকে যাত্রীবাহী পরিবহনের চাপ বাড়তে থাকে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায়। তবে ফেরি পারের অপেক্ষায় বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন পণ্যবোঝাই ট্রাক চালকরা।

বরঙ্গাইল হাইওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ বাসুদেব সিনহা বলেন, পাটুরিয়া ঘাটে পণ্যবোঝাই ট্রাকের চাপ থাকায় উথুলী সংযোগ মোড়ে অতিরিক্ত চাপ সামাল দিতে প্রায় দুই শতাধিক ট্রাক আটকে রাখা হচ্ছে। ঘাট এলাকায় চাপ কমলে সিরিয়াল অনুয়ায়ী পণ্যবোঝাই ট্রাকগুলোকে পাটুরিয়া অভিমুখে ছেড়ে দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা সেক্টরের ডিজিএম জিল্লুর রহমান বলেন, শুক্রবার হওয়াতে পাটুরিয়া ঘাটে যাত্রীবাহী পরিবহনের বাড়তি চাপ রয়েছে। এছাড়া পণ্যবোঝাই ট্রাক পারের অপেক্ষায় রয়েছে কয়েক শতাধিক। ১৫টি ফেরি দিয়ে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে যানবাহন পারাপার করছে।