পিকনিকের বাস থেকে ৫৮০০০ ইয়াবা উদ্ধার!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৫৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৫৯:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০১৯
সংগৃহীত

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের সাতকানিয়া কেরানীহাট এলাকায় একটি পিকনিকের বাসে অভিযান চালিয়ে ৫৮০০০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) বিকেলে সাতকানিয়ার কেরানিহাট এলাকায় ৫৮ হাজার ইয়াবাসহ বাসটি জব্দ করে র‌্যাব। এ ঘটনায় জড়িত বাসচালক মো. রহিম (২৯) ও চালকের সহকারী মো. রফিককে (২৮) আটক করা হয়। জব্দ করা হয়েছে ইয়াবা বহনকারী বাসটিও।

মাদক কারবারি কক্সবাজার থেকে একটি বাসযোগে বিপুপরিমাণ ইয়াবা নিয়ে চট্টগ্রামের দিকে আসছে- এমন একটি গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার বিকাল ৪টায় র‌্যাব-৭ চান্দগাঁও ক্যাম্প কমান্ডার মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া থানাধীন কেরানীহাট নামক স্থানে একটি বিশেষ চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশি শুরু করে।

এ সময় র‌্যাবের চেকপোস্টের দিকে আসা ‘আনন্দ ভ্রমণ হলদিয়া জামবাগান টু রাঙ্গামাটি’ পিকনিকের ব্যানার-সংবলিত কক্সবাজার হতে চট্টগ্রামগামী ‘মা বাবার দোয়া’ পরিবহন এর একটি বাসের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা বাসটিকে তল্লাশির জন্য সংকেত দেয়। এরপর বাসের ড্রাইভার র‌্যাবের চেকপোস্টের সামনে এসে থেমে যায়।

তাৎক্ষণিক র‌্যাব সদস্যরা যাত্রী এবং গাড়ি তল্লাশি শুরু করলে বাসের ড্রাইভার এবং হেলপার বাসের ভেতর থেকে বের হয়ে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় বাসের চালক ও হেলাপার কে আটক করা হয়।

পরবর্তীতে উপস্থিত যাত্রী ও স্থানীয় স্বাক্ষীদের সম্মুখে বাসটি তল্লাশি করে আটককৃত আসামিদের দেখানো ও শনাক্ত মতে বাসের ভেতরে সুকৌশলে লুকানো অবস্থায় ৫৮,০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধারসহ আসামিদের গ্রেফতার করা হয় এবং উক্ত বাসটি (চট্টো মেট্রো-জ-১১-১৯৫১) জব্দ করা হয়।

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মাশকুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কক্সবাজারের উখিয়া থেকে রাঙামাটি অভিমুখী একটি পিকনিকের বাসে অভিযান চালিয়ে বিশেষ কৌশলে বাসে লুকিয়ে রাখা ৫৮ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনায় বাসের চালক মোহাম্মদ রহিম (২৯) এবং হেলপার মোহাম্মদ রফিককে (২৭) গ্রেফতার করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে পিকনিকের বাসটিও। এ ঘটনায় সাতকানিয়া থানায় মামলা হবে।

র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা আরও জানান, উদ্ধারকৃত ইয়াবাগুলোর আনুমানিক মূল্য ২ কোটি ৯০ লাখ টাকা এবং জব্দকৃত বাসের আনুমানিক মূল্য ১ কোটি টাকা।