পিটারসন-ফ্লিনটফের পাশে বসছেন স্টোকস

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:৪৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০ | আপডেট: ৭:৪৩:অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২০

নিয়মিত অধিনায়ক জোর রুটের পরিবর্তে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিজ মাঠে আসন্ন তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দিবেন অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। আগামী সপ্তাহে দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হতে যাচ্ছেন রুট। তাই স্ত্রীর পাশে থাকার জন্য অনুশীলন ও প্রথম টেস্ট খেলবেন না তিনি। গতকাল রাতে এমন ঘোষণা দেয় ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

ইসিবির পক্ষ এ ব্যাপারে জানানো হয়, সন্তানসম্ভাবা স্ত্রীর পাশে থাকতে তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম টেস্টে খেলবেন না রুট। সহ-অধিনায়ক স্টোকস প্রথমবারের টেস্টে দলকে নেতৃত্ব দিবেন। স্টোকসের ডেপুটি হিসেবে কাজ করবেন উইকেটরক্ষক জশ বাটলার।

ক্যারিয়ারে কখনো প্রথম শ্রেণি, লিস্ট ‘এ’ বা টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেতৃত্ব দেননি স্টোকস। স্থানীয় পত্রিকা দ্য টাইমসের বলছে, কোনো প্রথম শ্রেণির ম্যাচে নেতৃত্ব না দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব করা গত ৫০ বছরের ইংল্যান্ড ইতিহাসে একমাত্র ছিলেন কেভিন পিটারসেন। এবার তার পাশে নাম লেখাবেন স্টোকস।

এছাড়া এন্ড্রু ফ্লিনটফের পর প্রথম অলরাউন্ডার হিসেবে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেবেন স্টোকস। ইংল্যান্ডের ৮১তম অধিনায়ক হিসেবে টেস্টে নেতৃত্ব দেবেন তিনি। ২০১৭ সালে রুট অধিনায়ক হওয়ার পর তিনি সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব পান।

ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো নেতৃত্ব পেয়ে উচ্ছসিত স্টোকস। বলেন, ‘ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হওয়াটা তার জন্য বিশাল সম্মানের। যদি সেটি এক ম্যাচেও জন্যও হয়ে থাকে, তারপরও আমি বলবো- আমি ইংল্যান্ডের অধিনায়ক। প্রথম টেস্ট নিয়ে আমি অনেক বেশি উচ্ছসিত।’

তিনি বলেন, ‘দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে চাই এবং সাফল্য এনে দিতে চাই। এই টেস্ট আমার ক্যারিয়ারের স্মরণীয় এক ম্যাচ হবে। এছাড়া দীর্ঘদিন পর আবারও ক্রিকেট ফিরতে যাচ্ছে মাঠে। সেক্ষেত্রে এ টেস্ট ম্যাচটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

এদিকে, দ্বিতীয় টেস্টের আগে ১৩ জুলাই (সোমবার) দলে যোগ দেবেন রুট। তবে দলে যোগ দেওয়ার আগে রুটকে বাধ্যতামূলক এক সপ্তাহের জন্য স্বেচ্ছা-আইসোলশনে থাকতে হবে।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে ১৬ জুলাই থেকে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। একই ভেন্যুতে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্ট শুরু হবে ২৪ জুলাই। করোনাভাইরাসের কারণে মার্চ থেকে বিশ্ব ক্রিকেট স্থগিত। এ সিরিজ দিয়ে দীর্ঘদিন পর আবারও মাঠে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট।