পুরো রাজশাহী শহরকে ওয়াই-ফাইয়ের আওতায় আনা হবেঃ মেয়র লিটন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ১১:২৩:অপরাহ্ণ, মার্চ ১৪, ২০১৯

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ২০০৮ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত মেয়র থাকাকালে পদ্মাপাড়ের বিনোদন কেন্দ্রে ওয়াইফাই চালু করেছিলাম। কিন্তু পরবর্তীকালে যারা দায়িত্বে এলেন, তারা বুঝলেন না ইন্টারনেটের প্রয়োজনীয়তা। অপচয় মনে করে বন্ধ করে দিলেন ওয়াইফাই।

লিটন বলেন, আমি মনে করি নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টসহ গুরুত্বপূর্ণ অন্তত ১০টি স্পটে ওয়াইফাই ব্যবস্থা থাকা উচিত। আগামীতে নগরীর ১০টি স্পটে ওয়াইফাই চালু করতে চাই। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

আজ বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশন বিষয়ক প্রশিক্ষণের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন এসব কথা বলেন।

মেয়র লিটন বলেন, একটা সময় ছিল যখন দেশের মানুষের তথ্যপ্রযুক্তি সম্পর্কে তেমন ধারণা ছিল না। ২০০৮ সালের নির্বাচনে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়ে নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছিল আওয়ামী লীগ। তখন ডিজিটাল বাংলাদেশের ধারণা নিয়ে বিএনপি-জামায়াত বিভিন্ন হাসিঠাট্টা করেছিল। তারাই এখন দেখতে পাচ্ছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। এখন মানুষ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ঘরে বসে অনেক কাজ করতে পারছে। তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর হবিবুর রহমান, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ও বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ রাজশাহী মহানগরের সহসভাপতি ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশন প্রজেক্টের পরিচালক আব্দুল হাই, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি রকি কুমার ঘোষ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।