পুলিশের সঙ্গে বিএনপি কর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:০৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮ | আপডেট: ৬:০৫:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮

পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, গাজীপুরে পুলিশের বাধায় বিএনপির নির্ধারিত কর্মসূচি পণ্ড হয়ে গেছে।

এসময় পুলিশ এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ পাঁচজনকে আটক করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার মামলার বিচারিক আদালত পরিত্যক্ত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তরের প্রতিবাদে ও মুক্তির দাবিতে আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় বিএনপির পূর্ব ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসূচি এবং ঢাকাসহ সারা দেশের সকল জেলা ও মহানগরে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করে।

এর আগে আজ বেলা ১১টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও নির্দিষ্ট সময়ের আগেই বিএনপির হাজার হাজার নেতাকর্মীরা প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় এসে জড়ো হতে থাকেন।

সকাল পৌনে ১০টার দিকে ব্যানার নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে স্লোগান দিতে থাকেন নেতাকর্মীরা। পরে তৃণমূলের শীর্ষ নেতারা মাইকে বক্তব্য দিতে শুরু করেন। এ সময় ‘বন্দী আছে আমার মা, ঘরে ফিরে যাবো না’, ‘চলছে লড়াই চলবে, খালেদা জিয়া লড়বে, ‘খালেদা জিয়ার ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’ স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠছে প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তা।

এই মানববন্ধনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের সিনিয়র নেতারা অংশগ্রহণ করবেন। ইতোমধ্যে অনেক শীর্ষ নেতা উপস্থিত হয়েছেন। গত রবিবার নয়াপল্টনে এক এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন জোট সরকার গণবিচ্ছিন্ন হতে হতে জনগণের কাছ থেকে দূরে সরে গেছে। সেজন্য একমাত্র পুলিশই আওয়ামী সরকারের ‘লোকাল গার্ডিয়ান’ ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। শেখ হাসিনা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়েই দেশের নিয়ন্ত্রণ মজবুত রাখতে চাচ্ছেন।

বিএনপি নেতাকর্মীরা লক্ষাধিক মামলায় জর্জরিত দাবি করে তিনি বলেন, বিভিন্নভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিরোধী দলকে দমনের কৌশল অবলম্বন করেছে সরকার। সরকার পাগলের মতো বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দিচ্ছে। এমনকি পবিত্র হজ পালনের জন্য সৌদি আরব থাকাকালীনও কয়েক জনের নামে মামলা দেয়া হচ্ছে। মৃত ব্যক্তির নামেও মামলা দিচ্ছে তারা।