প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে গার্দিওলার সিটি

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:২৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০২১ | আপডেট: ৪:২৯:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০২১

লিগে সাফল্য অনেক হয়ে গেছে তাদের, এসেছে সব ট্রফিও। কিন্তু একটা ট্রফির জন্য ম্যান সিটি বা পেপ গার্দিওলার আক্ষেপ কিছুতেই ঘুচছিল না। চ্যাম্পিয়নস লিগে কিছুতেই কিছু হচ্ছিল না সিটির, গত তিনবার স্বপ্ন ভেঙে গেছে কোয়ার্টার ফাইনালেই। আজও সেরকম একটা শংকা ছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেটা উড়িয়েই সিটি পা রেখেছে শেষ চারে। ডর্টমুন্ডের মাঠে এসে জিতেছে ২-১ গোলে, দুই লেগ মিলে ৪-২ গোলের সহজ জয়েই পৌঁছে গেছে সেমিতে। সেখানে তাদের প্রতিপক্ষ গতবারের ফাইনালিস্ট পিএসজি।

ঘরের মাঠে ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই জার্মানিতে গিয়েছিল ম্যান সিটি, কিন্তু পেপ গার্দিওলা জানেন, ফলটা মোটেই স্বস্তিদায়ক ছিল না। চ্যাম্পিয়নস লিগে ঘরের মাঠে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে পরের লেগে জেতার চেয়ে হারার রেকর্ডই বেশি।

ডর্টমুন্ডকে যেহেতু জিততেই হবে, শুরু থেকেই সেই বার্তা দিয়ে রেখেছে তারা। প্রথম গোলটার জন্য তাদের অপেক্ষা করতে হয়েছ ১৫ মিনিট। হালান্ডের শট ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হওয়ার পর বক্সের মাথায় বল পেয়ে গিয়েছিলেন জুড বেলিংহাম। ইংলিশ টিনএজার অনেক হাইপের পর বার্মিংহাম থেকে যোগ দিয়েছিলেন ডর্টমুন্ডে। আজ বড় মঞ্চে দেখালেন, সেটা নেহাত অমূলক নয়। প্রথমে বাঁ পায়ের দারুণ এক টাচে বলটা ডান পায়ে নিলেন, এরপর বুলেট শটে জড়িয়ে দেন জালে।

২৬তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে সমতায় ফেরা হয়নি সিটির। কেভিন ডে ব্রুইনের শট লাগে ক্রসবারে। পাঁচ মিনিট পর কাছ থেকে মাহরেজের নেওয়া শট গোললাইন থেকে ফেরান বেলিংহ্যাম।

৫৫তম মিনিটে সফল স্পট কিকে সমতা ফেরান মাহরেজ। প্রতিপক্ষের ক্রস ক্লিয়ার করার চেষ্টায় বল ডর্টমুন্ডের ডিফেন্ডার এমরে কানের মাথা ছুঁয়ে হাতে লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি।
১৪ ম্যাচ পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জালের দেখা পেলেন আলজেরিয়ার মিডফিল্ডার মাহরেজ।

৭৪তম মিনিটে অনেকটা দূর থেকে ডে ব্রুইনের নেওয়া শট ঠেকান গোলরক্ষক। পরের মিনিটেই দলকে এগিয়ে নেন ফোডেন। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার শট পোস্টের ভেতরের দিকে লেগে জালে জড়ায়।

শেষ পর্যন্ত ব্যবধান ধরে রেখে পরের রাউন্ডে ওঠার উল্লাসে মাঠ ছাড়ে সিটি। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে পিএসজির বিপক্ষে খেলবে তারা।

অন্য ম্যাচে লিভারপুলের মাঠে গোলশূন্য ড্র করে রিয়াল মাদ্রিদ। প্রথম লেগে ৩-১ গোলে জেতায় সেমি-ফাইনালে ওঠে জিনেদিন জিদানের দল। শেষ চারে তাদের প্রতিপক্ষ চেলসি।