প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আসন ভাগাভাগি নিয়ে মারামারি, আহত ১

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:২৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ | আপডেট: ৮:২৭:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
ছবি: সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আসন ভাগাভাগি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগের সভাপতির বৈঠকে মারামারিতে এক জন আহত হয়েছেন। এ অভিযোগে ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, জাতিসংঘের ৭৪ তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে আসছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। এ উপলক্ষ্যে পুরো যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত প্রবাসী বাঙালি বিশেষ করে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মাঝে সাজ সাজ রব পড়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নিতে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর মিডটাউন ম্যানহাটানে এক নাগরিক সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে দফায় দফায় আনুষ্ঠানিক ও ঘরোয়া প্রস্তুতিসভায় ব্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতারা।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে এমনই এক প্রস্ততিসভায় হামলার ঘটনা ঘটেছে। জ্যাকসন হাইটসের তিতাস রেস্টুরেন্টে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমানের সাথে প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা আয়োজনের দায়িত্বে থাকা সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়ালী হোসাইনসহ কয়েকজন নেতা প্রস্তুতি নিয়ে কথা বলছিলেন। এমন সময় নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেনের নেতৃত্বে ১০ জনের একটি দল ওয়ালী হোসাইনের ওপর হামলা করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নেন। এ ঘটনায় এমদাদ চৌধুরী, তার ভাইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গণসংবর্ধনায় চেয়ার বরাদ্দ নিয়ে দুদিন আগে থেকেই এমদাদের সঙ্গে ওয়ালীরউত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এমদাদের দাবি, নিউইয়র্ক আওয়ামী লীগকে সামনের সারি ও মোট চেয়ারের অর্ধেকের বেশি বরাদ্দ দিতে হবে। কিন্তু ওয়ালী হোসাইন তাকে জানান, প্রতিটি স্টেট আওয়ামী লীগের জন্য নির্দিষ্ট সংখ্যক আসন বরাদ্দ রেখে প্রস্ততি প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। এতেই ক্ষেপে গিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে যান নিউইয়র্ক মহানগরের সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেন।

সংগঠনের একজন কর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, সামনের সারিতে বসার ব্যবস্থা করার কথা বলে কয়েক জনের কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়েছেন এমদাদ। যাদের অনেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত নয়।

এ ব্যাপারে ড. সিদ্দিকুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। ওয়ালি মুজিব আদর্শের এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা। এ বিষয়ে পুলিশকে জানানো হয়েছে। তবে এমদাদের টাকা পয়সা নেয়ার বিষয়টি আমি জানি না।

ঘটনার সময় উপস্থিত কয়েকজন নেতাকর্মী নিন্দা প্রকাশ করে বলেন, আসলে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের আসন্ন সম্মেলনকে ঘিরে নানা ব্যক্তিগত ও দলগত ক্ষোভ প্রকাশ পাচ্ছে।

এর আগে, গত সপ্তাহে, এমনই এক প্রস্ততি সভায় গাড়ি পার্কিং নিয়েও হাতাহাতিতে তিনজন আহত হয় এবং ঘটনা পুলিশ পর্যন্ত গড়ায়।