প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দেওয়া সেই কবুতরটি মেরে ফেলা হবে

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:২৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২১ | আপডেট: ১২:২৫:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০২১

গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে কবুতরটিকে দেখতে পাওয়া যায়। যা ওই বছরেরই অক্টোবরের শেষ দিকে যুক্তরাষ্ট্রের ওরেগন রাজ্য থেকে নিখোঁজ হয়। অর্থাৎ দীর্ঘ ৮ হাজার মাইল তথা প্রশান্ত মহাসাগর পাড়ি দিয়ে মার্কিন এই কবুতরটি অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশ করে।

যদিও কীভাবে পাখিটি এই দীর্ঘ পথ পাড়ি দিলো তা এখনো জানা যায়নি। তবে অস্ট্রেলিয়ার কঠোর কোয়ারেন্টাইনের বিধান অনুযায়ী কবুতরটি মেরে ফেলা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিদেনে জানিয়েছে, ‘জো’ নামের ওই কবুতরটিকে দেশটির পোল্ট্রি শিল্পের জন্য বায়োসিকিউরিটি (জীব নিরাপত্তার ঝুঁকি) হিসেবে বিবেচনা করছেন অস্ট্রেলিয়ার কর্মকর্তারা।

বিষয়টি এখনো স্পষ্ট নয় যে, যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূল থেকে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া পর্যন্ত ৮ হাজার মাইল পথ কীভাবে পাড়ি দিলো পাখিটি। তবে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, কোনো একটি মালবাহী জাহাজে চড়ে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছে থাকতে পারে ‘জো’।

জানা যায়, গত ২৬ ডিসেম্বর অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নের বাসিন্দা কেভিন সেলি-বার্ড তার বাড়ির পেছনের বাগানে কবুতরটিকে প্রথম দেখতে পান।

এ সম্পর্কে বার্তা সংস্থা এপিকে কেভিন বলেন, ওই সময় কবুতরটিকে বেশ দুর্বল লাগছিল। তাই সেটিকে তিনি একটি শুকনো বিস্কুট ভেঙে খেতে দেন।

পরবর্তীতে ইন্টারনেটে ঘাটাঘাটি করে মেলবোর্নের ওই বাসিন্দা জানতে পারেন যে, কবুতরটি যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামা অঙ্গরাজ্যের এক ব্যক্তির নামে নিবন্ধন করা। সর্বশেষ সেটিকে দেখা গিয়েছিল পশ্চিম ওরেগন রাজ্যের কবুতর প্রতিযোগিতায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কবুতরটি এখনো ধরা পড়েনি। তবে অস্ট্রেলিয়ার পরিবেশ অধিদপ্তর জানিয়েছে, তারা কবুতরটির মাধ্যমে স্থানীয় পক্ষীকূলের রোগ সংক্রমণের ঝুঁকি আছে বলে আশঙ্কা করছেন। সে কারণে কবুতরটিকে ধরা হবে।

এক বিবৃতিতে ওই অধিদপ্তরের মুখপাত্র বলেন, সেটি যেখান থেকেই আসুক না কেন, সেটা বিষয় না। কিন্তু তাদের দেশে বাইরে থেকে কোনো পোষা পাখি আসলে স্বাস্থ্যগত মান ও প্রয়োজনীয় পরীক্ষা ছাড়া থাকার অনুমতি নেই।